‘উন্নয়ন চাইলে ফের নৌকা মার্কায় ভোট দেবে জনগণ’

অনলাইন ডেস্ক : প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, উন্নয়ন চাইলে ফের নৌকা মার্কায়ই ভোট দেবে জনগণ। তিনি বলেন, নির্বাচনে যদি জনগণ (আমাদের) ভোট দেয় তাহলে (ক্ষমতায়) আসব, আর যদি না দেয় তবে আমার কোনো আফসোস নেই। আমার খুব একটা আফসোস নেই। কারণ, বাংলাদেশের উন্নয়নের ধারাটা যে আমরা শুরু করেছি সেটা যাতে অব্যাহত থাকে সেটা আপনারা দেখবেন।
আজ শনিবার বিকেলে বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষকদের প্রথম সম্মেলনের বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।
প্রধানমন্ত্রী বলেন, বিএনপি সরকারের আমলে শিক্ষাখাতসহ দেশ সব ক্ষেত্রে পিছিয়ে গিয়েছিলো। বর্তমান সরকার প্রতিটি মানুষের কাছে শিক্ষার আলো পৌঁছে দেয়ার পাশাপাশি কর্মসংস্থান সৃষ্টি করেছে।
শিক্ষকদের উচ্চতর প্রশিক্ষণ এবং গবেষণার ব্যাপারে সরকার যতœশীল জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, আবারো ক্ষমতায় এলে তাদের অন্য দাবিগুলোও পূরণ করবে সরকার। গ্রামীণ ব্যাংকের সাবেক এমডি এবং একজন সম্পাদক অপপ্রচার চালিয়ে পদ্মা সেতু প্রকল্পে বিশ্বব্যাংকের অর্থায়ন বন্ধ করেছিলো বলেও মন্তব্য করেন সরকারপ্রধান।
শেখ হাসিনা বলেন, যারা আমাদের পদ্মা সেতুর টাকা বন্ধ করেছিলো, তারাতো আমাদের মুক্তিযুদ্ধকে সাপোর্ট করে নাই। তাদেরকে বাদ দিয়ে আমরা বিজয় অর্জন করেছি। উনি (ড.মুহাম্মদ ইউনুস) আমেরিকাতে আগে থেকেই লবিং করতেছিলো। হিলারি ক্লিনটন নিজে আমাকে টেলিফোন করলেন, ওনাকে এমডি পদে রাখতে হবে। আমি বললাম, ওনাকে এমডি পদে কেন, ওনাকে আমরা আরো উচ্চ পদে রাখতে চেয়েছিলাম। সেটা গ্রহণ করেননি। আমার সাথে কথা হলে, তার একই কথা। টনি বেøয়ার তখন প্রধানমন্ত্রী। তিনি আমাকে বললেন, আমি একই উত্তর দিলাম। এটা কোর্টের ব্যাপার, আইনের ব্যাপার।
এরপর আমাদের দেশেরই একজন সম্পাদক খুব ভাল ইংরেজি বলেন; তিনিও তার সাথে দোসর হলেন। আমেরিকাও চলে গেলেন, হিলারির কাছে বহু মেইল পাঠানো হলো। তারই প্রচারণায় হিলারি ক্লিনটন নির্দেশ দিল, বিশ্বব্যাংকের প্রেসিডেন্টকে যে পদ্মা সেতুর টাকা বন্ধ করতে হবে।
নির্বাচন নিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, আগামীকাল থেকে পার্লামেন্ট শুরু হবে। এটা এই সরকারের শেষ বৈঠক। এরপর নির্বাচন প্রক্রিয়া। নির্বাচনে জনগণ যদি ভোট দেয়, হয়তো নির্বাচিত হয়ে আসবো। আর যদি নাও দেয়, আমার কোন আফসোস নেই। কেননা বাংলাদেশের উন্নয়নের যে ধারাটা আমরা শুরু করেছি, আমি চাই সে ধারাটা যেন অব্যাহত থাকে। সেটাই আপনারাই দেখবেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *