‘এক ব্যক্তি অঞ্জলি ভরতি স্বর্ণ রৌপ্য নিয়ে বের হবে’

আবদুল হালিম খান : হজরত আদি ইবনে হাতেম (র.) কর্তৃক বর্ণিত, তিনি বলেন, একদিন আমি নবি করিম সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম-এর নিকট হাজির ছিলাম, এমন সময় এক ব্যক্তি আগমন করে তাঁর নিকট ডাকাতির অভিযোগ করল।

নবি করিম সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বললেন, হে আদী! তুমি কি হিরা (শহর) দেখেছ?

আমি বললাম, আমি শহরটি দেখিনি, তবে তার অবস্থান সম্পর্কে আমার জানা আছে।

নবি করিম (সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম) বললেন, তুমি বেঁচে থাকলে অবশ্যই দেখতে পাবে যে, এক বৃদ্ধা মহিলা হিরা হতে আগমন করে কাবাঘরের তাওয়াফ করছে। আল্লাহ ছাড়া কাউকে সে ভয় করবে না।

আমি মনে মনে বললাম, বনি তাই গোত্রের ডাকাতরা (তখন) কোথায় থাকবে যারা (বর্তমানে) বিভিন্ন শহরে ফেতনাÑফ্যাসাদের আগুন জ্বালিয়ে রেখেছে।

নবি করিম সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম আরও বলেছেন, তুমি বেঁচে থাকলে তোমার পারস্যাধিপতির ধনাগারসমূহ অবশ্যই জয় করবে। আমি বললাম, সে কি কিসরা ইবনে হরমুয?

তিনি বললেন, (হ্যাঁ) কিসরা ইবনে হরমুয। তিনি বললেন, তুমি বেঁচে থাকলে (আরও) দেখতে পাবে যে, একটি লোক অঞ্জলি ভরতি (অজস্র) স্বর্ণ-রৌপ্য নিয়ে বের হবে এবং এমন একটি লোক তালাশ করে বেড়াবে যে তার নিকট হতে তা গ্রহণ করবে; কিন্তু একটি লোক এমন পাবে না, যে তার নিকট হতে তা গ্রহণ করবে। তোমাদের প্রত্যেকটি লোক রোজ কেয়ামতে আল্লাহর সঙ্গে অবশ্যই দেখা করবে। (সেদিন) তার ও আল্লাহর মধ্যে এমন কোনো মাধ্যম থাকবে না, সে তার কথাগুলো ভাষান্তরিত করে (বুঝে) দেবে। আল্লাহ বলবেন, আমি কি তোমার নিকট আমার বাণী পৌঁছে দেবার জন্য কোনো রাসুল প্রেরণ করিনি? সে বলবে হ্যাঁ, নিশ্চয়ই। তারপর আল্লাহ বলবেন, আমি কি ধনসম্পদও সন্তান-সন্ততি দান করিনি। সে বলবে, হ্যাঁ অবশ্যই। তখন সে তার ডান দিকে দৃষ্টি দেবে। তখন জাহান্নাম ছাড়া আর কিছুই দেখতে পাবে না। তারপর বাম দিকে তাকাবে; কিন্তু জাহান্নাম ছাড়া আর কিছুই তার দৃষ্টিতে পড়বে না।

আদি বলেন, আমি নবি করিম সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামÑকে বলতে শুনেছি, অর্ধেক খেজুর দান করে হলেও তোমরা (দোজখের) আগুন থেকে বেঁচে থাকো। কেউ অর্ধেক খেজুর দানেও অসমর্থ হলে উত্তম কথা দ্বারা বেঁচে থাকো।

আদি বলেন, নবি কারীম সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম-এর প্রথম ভবিষ্যদ্বানী অনুযায়ী (পরবর্তী কালে) আমি এক বৃদ্ধ মহিলাকে দেখেছি, হিরা হতে আগমন করে কাবা ঘরে তাওয়াফ করছে। আল্লাহ ছাড়া আর কাউকে সে ভয় করছে না। আর নবি করিম সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম-এর দ্বিতীয় ভবিষ্যদ্ববাণী অনুযায়ী আমিও তাদের মধ্যে ছিলাম, যারা কিসরা ইবনে হরমুযের ধনাগার দখল করেছে। আর তোমরা বেঁচে থাকলে (তৃতীয় ভবিষ্যদ্ববাণী হিসেবে) নবি আবুল কাসেম (সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম) যা বলেছেন, এক ব্যক্তি অঞ্জলি ভরতি (অজস্র) স্বর্ণ-রৌপ্য নিয়ে বের হবেÑতাও তোমরা অবশ্যই দেখতে পাবে। (সহিহ বোখারি)

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *