কার্ড ছাপানোর পরও বিয়ে হয়নি সালমানের

বিনোদন ডেস্ক : বিয়ে নিয়ে কোনো রকমের দুশ্চিন্তা নেই এমন কথা বার বার জানিয়েছেন বলিউডের মোস্ট এলিজিবল ব্যাচেলর সালমান খান। এদিকে প্রিয় তারকার বিয়ে হয়ে যাক, এটা হার্ডকোর ভক্তরা না চাইলেও, তার বিয়ের ডেট জানতে সকলেই আগ্রহী। তবে অনেকেই হয়তো জানেন না, বিয়ের কার্ড ছাপানোর পরেও পিঁড়িতে বসতে পারেননি এই অভিনেতা।

বলিউডের সাবেক অভিনেত্রী সঙ্গীতা বিজলানি। ১৯৮০ সালে মিস ইন্ডিয়া খেতাব জয়লাভ করেন তিনি। এর পরেই সালমানের সাথে প্রেমের সম্পর্কে জড়িয়ে পড়েন। সঙ্গীতা বিজলানি বয়সে সালমানের চেয়ে ৫ বছরের বড়। ১৯৯৪ সালে ২৭ মে তাকে বিয়ে করার কথা ছিলো সালমান খানের। কার্ড ছাপানোও হয়েছিলো বিয়ের। কিন্তু তা আর সম্ভব হয়নি। জীবনের সেই হৃদয় বিদারক ঘটনাটি নিয়ে মুখ খুললেন সালমান।

জানা যাচ্ছে, ২০১৩ সালে সালমান কফি উইথ করণে এসেছিলেন। সে সময়ই তার ব্যক্তিগত জীবনের কিছু দিক তুলে ধরেন তিনি। করণের এক প্রশ্নে তিনি বলেন, ‘সঠিক সময় এলেই বিয়ে করবো। একটা সময় এসেছিল যখন সত্যিই আমি বিয়ে করতে চেয়েছিলাম। অনেকদূর এগিয়েও গিয়েছিলাম। সঙ্গীতার সঙ্গে বিয়ের কার্ড ছাপানো হয়ে গিয়েছিল। কিন্তু আমি সঙ্গীতার যোগ্য ছিলাম না। পরে বিয়েটা ভেঙে যায়।’

১৯৯৬ সালে ভারতীয় ক্রিকেটার আজহার উদ্দিনকে বিয়ে করেন সঙ্গীতা।

বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যমে ইতিমধ্যেই ঘুরছে সালমানের এই বক্তব্য।

তবে সঙ্গীতা ছাড়াও, ক্যাটরিনা, ঐশ্বরিয়ার মতো অনেকের সঙ্গে পরে সম্পর্কে জড়িয়েছেন সালমান খান। বর্তমানে তিনি রোমান গায়িকা ইউলিয়া ভান্তুরের সঙ্গে ডেট করছেন। এই অভিনেতার ঘরোয়া অনুষ্ঠানে অনেকবারই তাকে উপস্থিত থাকতে দেখা গেছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *