চলন্ত বাসে স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণের চেষ্টা

সিদ্ধিরগঞ্জ থেকে সংবাদদাতা : নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জে চলন্ত বাসে স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণের চেষ্টা করা হয়েছে। এ ঘটনায় ধর্ষণ চেষ্টাকারীসহ গাড়ির চালক ও হেলপারকে গণধোলাই দিয়ে পুলিশের হাতে তুলে দেয়া হয়েছে।

আজ সন্ধ্যা ৬টায় ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের সিদ্ধিরগঞ্জের শিমরাইল মোড় এলাকায় রজনীগন্ধা পরিবহনে এ ঘটনাটি ঘটে। এ ঘটনায় সিদ্ধিরগঞ্জ থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে বলে জানিয়েছেন সিদ্ধিরগঞ্জ থানার ওসি মীর শাহীন শাহ পারভেজ।

পুলিশ জানায়, সিদ্ধিরগঞ্জের মিজমিজি এলাকার দশম শ্রেণির স্কুলছাত্রী সন্ধ্যার দিকে প্রাইভেট পড়া শেষে মায়ের জন্য টেইলারিং কাজের সুতা কেনার জন্য ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের মৌচাক থেকে শিমরাইল মোড় যাওয়ার জন্য রজনীগন্ধা পরিবহন (ঢাকা-মেট্রো-ব-১৫-১৮৪৯) নং বাসে উঠে। বাসটি মহাসড়কের শিমরাইল ইউটার্ন এলাকায় এলে সকল যাত্রী নেমে যায়।

মেয়েটি শিমরাইল মোড়ের ফুটওভার ব্রিজের সামনে নামার জন্য বাসের হেলপারকে বলে। এসময় সোলেমান (২২) নামের যুবক মেয়েটিকে জাপটে ধরে ধর্ষণের চেষ্টা করে। চিৎকার করতে চাইলে মেয়েটির গলা টিপে ধরে ধর্ষণের চেষ্টাকারী সোলেমান। পরে তারা গাড়িটি কাঁচপুর সেতুর নিচে নিয়ে যায়। সেখানে মেয়েটির চিৎকারে স্থানীয় লোকজন ধর্ষণের চেষ্টাকারী সোলেমান, গাড়ির চালক হাবিবুর রহমান (৪২) ও হেলপার জয়কে (২৩) আটক করে গণধোলাই দেয়। পরে তাদের পুলিশে সোপর্দ করে লোকজন।

পুলিশ রজনীগন্ধা পরিবহনের ওই বাসটি জব্দ করে থানায় নিয়ে আসে। এ ঘটনায় থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে বলে জানিয়েছেন সিদ্ধিরগঞ্জ থানার অফিসার্স ইনচার্জ (ওসি) মীর শাহিন শাহ পারভেজ।

গ্রেফতারকৃত সোলেমান পটুয়াখালী জেলার বাউফল থানার কামারপাড়া এলাকার লোকমান সরকারের ছেলে। সে ঢাকার যাত্রবাড়ী মীরহাজারীবাগ এলাকায় থাকে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *