তোপের মুখে জিএম কাদেরকে পুনর্বহালে বাধ্য হলেন এরশাদ

নিজস্ব প্রতিবেদক : ফের সিদ্ধান্ত বদলালেন জাতীয় পার্টির (জাপা) চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ। জিএম কাদেরকে সরিয়ে দেয়ার ১৩ দিনের মাথায় আবারও জাতীয় পার্টির (জাপা) চেয়ারম্যান মত পরিবর্তন করলেন। দলের কো-চেয়ারম্যান পদে জিএম কাদেরকে পুনর্বহাল করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার এইচ এম এরশাদ স্বাক্ষরিত সাংগঠনিক নির্দেশে বলা হয়, জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য জিএম কাদের এমপিকে কো-চেয়ারম্যান পদে পুনর্বহাল করা হলো। পার্টির গঠনতন্ত্রের ২০/১/ক ধারা মোতাবেক এই নিয়োগ প্রদান করা হলো।

এদিকে খবরটি শোনার পর জিএম কাদেরের লালমনিরহাট-৩ (সদর) সংসদীয় আসনের নেতাকর্মীদের মাঝে স্বস্তি ফিরে এসেছে। জিএম কাদের ইস্যুতে জাপার রংপুর বিভাগের আট জেলার নেতাদের গণপদত্যাগের ঘোষণার প্রেক্ষিতে এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছেন এরশাদ।

বৃহস্পতিবার বিকালে জাপার প্রেসিডিয়াম সদস্য ও রংপুর সিটি করপোরেশনের (রসিক) মেয়র মোস্তাফিজার রহমান মোস্তফা বলেন, ‘স্যার (এরশাদ) ফোন করে আমাকে ঢাকায় ডেকেছেন। গত বুধবার ঢাকায় স্যারের বাসায় আমরা জিএম কাদের বিষয়টি নিয়ে বৈঠক করি।’

বৈঠকে এরশাদ স্যার বলেন, ‘তোমাদের দাবির সঙ্গে আমি একমত। খুব দ্রুত জিএম কাদেরকে তার পদে নিয়ে আসা হবে। তাকে দু-একদিনের মধ্যে আগের পদে পুনর্বহাল করা হবে। এ নিয়ে কোনো আন্দোলনের প্রয়োজন নেই।’

গত ২৭ মার্চ রংপুরে জিএম কাদেরকে কো-চেয়ারম্যান পদ থেকে অব্যাহতি দেয়ায় প্রতিবাদে ফুঁসে উঠে লালমনিরহাট-৩ (সদর) আসনের নেতাকর্মীরা। তারা দলের চেয়ারম্যানের ওই সিদ্ধান্তের বিরোধিতা করে জিএম কাদেরকে স্ব-পদে পুনর্বহালের দাবিতে দফায় দফায় প্রতিবাদ সভা ও বিক্ষোভ মিছিল করে।

এদিকে আগামী ৫ এপ্রিলের মধ্যে জি এম কাদেরকে কো-চেয়ারম্যান পদে পুনর্বহাল করা না হলে দলের সাংগঠনিক দায়িত্ব থেকে গণ-অব্যাহতি ও রংপুর বিভাগে দলের সব কার্যক্রম প্রতিহত করার ঘোষণা দিয়ে সংবাদ সম্মেলন করেন রসিক মেয়র মোস্তাফিজার রহমান মোস্তফা।

এরই পরিপ্রেক্ষিতে দলের চেয়ারম্যান জিএম কাদেরকে পুনর্বহাল করার আশ্বাস দেন। পাশাপাশি তাদের আন্দোলন থেকে বিরত থাকার কথাও বলেন।

দলকে সংগঠিত করতে না পারার ‘অপরাধ’ এবং জ্যেষ্ঠ নেতাদের সঙ্গে মতবিরোধের কারণ দেখিয়ে গত ২২ মার্চ মধ্যরাতে জিএম কাদেরকে কো-চেয়ারম্যান পদ থেকে অব্যহতি দেন এরশাদ। পর দিন তাকে বিরোধীদলীয় উপনেতার পদ থেকেও সরিয়ে দেন। উপনেতা পদে বসান স্ত্রী রওশন এরশাদকে।

জিএম কাদেরকে পদ ফিরিয়ে দিতে কিছুদিন ধরেই জাপায় অস্থিরতা চলছে। গত বুধবার প্রেস ক্লাবের সামনে বিক্ষোভ করে দলটির একাংশ। তবে এর আগের দিনই ভাবী রওশনের সঙ্গে এক মঞ্চে বক্তৃতা করেন দেবর জিএম কাদের। তারা দু’জনেই দাবি করেন জাপায় বিভেদ নেই। দেবর-ভাবী সম্পর্কোন্নয়নের খবরের মধ্যেই পদ ফিরে পেলেন জিএম কাদের। দলের পদ ফিরে পেলেও উপনেতার পদে রওশন এরশাদই থাকছেন। তবে এরশাদের অসুস্থতার কারণে চেয়ারম্যানের দায়িত্ব জিএম কাদেরই পালন করবেন বলে দলটির সূত্র জানিয়েছে।

তবে এসব বিষয়ে মন্তব্য করতে রাজি হননি জিএম কাদের। তিনি জানান, সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে জেনেছেন তাকে পুনর্বহাল করা হয়েছে। পুনর্বহালের আনুষ্ঠানিক চিঠি এখনো হাতে পাননি। হাতে পেলে প্রতিক্রিয়া জানাবেন।

২০১৬ সালের ১৭ জানুয়ারি জিএম কাদেরকে কো-চেয়ারম্যান নিয়োগ করলে বিদ্রোহী হন রওশন এরশাদ। এরশাদকে অব্যাহতি দিয়ে রওশনকে ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান ঘোষণা করেছিলেন জিএম কাদের বিরোধীরা। এ কারণে পদ হারিয়েছিলেন জাপার তৎকালীন মহাসচিব জিয়াউদ্দিন আহমেদ বাবলু। পরে চাপের মুখে রওশনকে সিনিয়র কো-চেয়ারম্যান নিয়োগ করে পরিস্থিতি সামাল দেন এরশাদ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *