নুসরাতকে পুড়িয়ে মারতে বোরকা ও কেরোসিন সংগ্রহ করে দুই মেয়ে

অনলাইন ডেস্ক : মাদ্রাসাছাত্রী নুসরাতকে আগুনে পুড়িয়ে হত্যার পরিকল্পনায় সরাসরি দুই মেয়ে জড়িত। তাদের দুজনের দায়িত্ব ছিল তিনটি বোরকা ও কেরোসিন সংগ্রহ করা। পরিকল্পনা অনুযায়ী সেটাই করেছিল তারা।

নুসরাত হত্যার তদন্তে এসব তথ্য জানতে পেরেছে পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই)। ওই মাদ্রাসাছাত্রীকে আগুনে পুড়িয়ে হত্যায় ১৩ জনের সংশ্লিষ্টতা পেয়েছে সংস্থাটি। তবে আগুনে পোড়ানোর কাজে অংশ নিয়েছিল চারজন।

পিবিআই প্রধান ডিআইজি বনজ কুমার মজুমদার বলেন, ‘নুসরাতকে হত্যা করতে দুজন মেয়ে অংশ নিয়েছিল। তার মধ্যে একজন হলেন চম্পা ওরফে শম্পা। সেও মাদ্রাসাছাত্রী। আর অপর একজন মেয়েও যুক্ত ছিল এই হত্যাকাণ্ডে। তবে তদন্তের স্বার্থে তার নাম-পরিচয় প্রকাশ করা সম্ভব হচ্ছে না।’

পিবিআইয়ের এক কর্মকর্তা বলেন, ‘এই দুই মেয়ে অপর হত্যাকারীদের জন্য তিনটি বোরকা সংগ্রহ করেছিল। তাদের মধ্যে একজন কেরোসিন তেল সংগ্রহ করে এনেছিল।’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *