বাগাতিপাড়ায় বকুল স্মৃতি থিয়েটারের পহেলা বৈশাখের প্রস্তুতি

মোঃ আশিকুর রহমান, বাগাতিপাড়া (নাটোর) থেকে: বাংলার নতুন বছরের প্রথম স‚র্যোদয়ের সঙ্গে সঙ্গে বর্ষবরণে উন্মুখ বাঙালি নানা প্রস্তুতির মধ্য দিয়ে অপেক্ষা করছে পহেলা বৈশাখের। সর্বজনীন এই উৎসব ঘিরে এবং নতুন বছরকে বরণ করতে বকুল স্মৃতি থিয়েটারে চলছে শেষ মুহ‚র্তের প্রস্তুতি।

নাটোরের বগাতিপাড়া উপজেলার বকুল স্মৃতি থিয়েটারে দেখা যায়, পহেলা বৈশাখের প্রস্তুতিতে সেখানকার থিয়েটার কর্মিরা ব্যস্ত সময় পার করছে। বাংলার নতুন বর্ষকে বরণ উৎসবের আর মাত্র এক দিন বাকি। তাই থিয়েটার চত্বরে চলছে বর্ষবরণের বিভিন্ন প্রস্তুতি।

বরাবরের মতো এবারও বর্ষবরণের অন্যতম অনুষঙ্গ মঙ্গল শোভাযাত্রা ১৪ এপ্রিল সকাল সাড়ে আট টায় বাগাতিপাড়া সরকারি পাইলট মডেল উচ্চ ববিদ্যালয় প্রাঙ্গণ থেকে শুরু হবে। এর আগে সকাল সাতটা থেকে বৈশাখী মঞ্চে বাউল গানের আয়োজন থকছে।

মঙ্গল শোভাযাত্রায় আবহমান বাংলার ঐতিহ্যের নানা অনুষঙ্গের প্রতিচ্ছবি ফুটিয়ে তুলতে সৌভাগ্যের প্রতিক ঘোড়া, দোয়েল, বক ও প্রজাপতি, লোকজ সংস্কৃতিকে প্রাধান্য দিয়ে পালকি, প্ল্যাকার্ড, ফেস্টুনসহ বাঘ ও প্যাঁচার ছোট-বড় হরেক রঙের বিভিন্ন মুখোশ তৈরির কাজে ব্যস্ত সময় পার করছেন তারা। এছাড়া শোভাযাত্রায় চারণ কবি লালন শাহ, শাহ আব্দুল করিম, হাসন রাজা সহ অনান্য কবিদের প্রতিচ্ছবি শোভা পাবে।

বকুল স্মৃতি থিয়েটারে সাধারণ সম্পাদক ও সাংবাদিক মিজানুর রহমান বলেন, ‘বাংলা বর্ষবরণ আমাদের প্রাণের উৎসব, এটি কোনও নির্দিষ্ট ধর্মের বা গোষ্ঠীর উৎসব নয়। কিন্তু যারা একে একটি ধর্মের উৎসব বলে এই উৎসবের সর্বজনীনতা নষ্ট করে তাদের সম্পর্কে আমাদের সচেতন থাকতে হবে। পহেলা বৈশাখ আমাদের বাঙালি জাতির নিজস্ব সংস্কৃতি।’

সংশ্লিষ্ট স‚ত্র জানিয়েছে, বর্ষবরণের দিন রোববার মঙ্গল শোভাযাত্রায় থাকছে যেমন খুশি তেমন সাজ, শোভাযাত্রা শেষে পান্তাভোজ, মেয়েদের গ্রামীণ খেলাধূলা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *