‘বিএনপি নোংরা রাজনৈতিক অান্দোলনে পরিণত করতে চাইছে’

অনলাইন ডেস্ক : আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, নিরাপদ সড়কের দাবিতে শিক্ষার্থীদের আন্দোলন বিষয়ে সরকার যথেষ্ট ধৈর্য্যের পরিচয় দিয়েছে। শিক্ষার্থীদের আন্দোলনে সরকার বা সরকারি বাহিনী কোনো প্রকার বাধা দেয়নি। প্রধানমন্ত্রী যতদিন ধৈর্য্য ধরতে বলবেন ততদিন ধৈর্য্য ধরবে সরকার। তবে প্রয়োজনে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

শনিবার বিকালে ধানমন্ডিস্থ আওয়ামী লীগ সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ে আয়োজিত এক প্রেস ব্রিফিং এ কথা বলেন তিনি।

ওবায়দুল কাদের বলেন, শিক্ষার্থীদের অরাজনৈতিক আন্দোলনকে বিএনপি নোংরা রাজনৈতিক অান্দোলনে পরিণত করতে চাইছে। শিক্ষার্থীদের পোশাকে কিছু দুর্বৃত্ত আওয়ামী লীগ অফিসে হামলা চালিয়েছে। এ ঘটনায় আওয়ামী লীগের ১৭ জন নেতা-কর্মী আহত হয়েছে। প্রকৃত অর্থে বিএনপি শিক্ষার্থীদের আন্দোলনকে ব্যবহার করে ঘোলা পানিতে মাছ শিকার করার অপচেষ্টা করছে।

তিনি বলেন, বিএনপি আমার পদত্যাগ চাইছে। আমি বলবো বিএনপি সব নেতারা পদত্যাগ করলে দেশে শান্তি ফিরে আসবে। তারা শিক্ষার্থীদের এ অরাজনৈতিক আন্দোলনকে রাজনীতির রঙ চড়ানোর চেষ্টা করছে। নীলক্ষেতসহ বিভিন্ন জায়গা থেকে আইডিকার্ড ও ইউনিফর্ম বানিয়ে বহিরাগতদের অান্দোলনকারীদের সাথে ভিড়িয়ে দিচ্ছে দলটি। কোমলমতি শিক্ষার্থীদের ওপর বল প্রয়োগ না করতে সরকার কঠোর অবস্থানে আছে। কিন্তু, রাজনৈতিক অপশক্তি শিক্ষার্থীদের আন্দোলনকে ব্যবহার করে ঘোলা পানিতে মাছ শিকার করার অপচেষ্টা করছে।

পার্টি অফিসে হামলা প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ইউনিফর্ম পরিহিত কিছু ছাত্রছাত্রী আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের ওপর ইট পাটকেল ছোড়ে। এ ঘটনায় আওয়ামী লীগের বেশ কয়েকজন নেতাকর্মী আহত হয়। আহতদের একজনের অবস্থা গুরুতর। আহত ১৭ জন জিগাতলার জাপান-বাংলাদেশ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। আইনশৃঙ্খলা বাহিনী ও নেতাকর্মীদের হস্তক্ষেপে পরিস্থিতি শান্ত।

এ হামলা সাধারণ শিক্ষার্থীদের হতে পারে না। এ হামলা বিএনপি জামাতের প্রশিক্ষিত ক্যাডার বাহিনী করেছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *