রাউজানের নোয়াপাড়ায় বিশাল সুন্নি সমাবেশ

এম বেলাল উদ্দিন, রাউজান থেকে : রাউজানের নোয়াপাড়া ইউনিয়ন গাউসিয়া কমিটির উদ্যোগে পবিত্র শোহদায়ে কারবালা স্মরণে ও আওলাদে রাসুল (দ.) আল্লামা হাফেজ ক্বারী সৈয়্যদ মুহাম্মদ তৈয়্যব শাহ (রহ.) এর বার্ষিক ওরস মোবারক উপলক্ষে ২ দিন ব্যাপী আজিমুশশান সুন্নি সমাবেশ নানা কর্মসূচির মধ্যে দিয়ে অনুষ্ঠিত হয়েছে। গত শুক্রবার প্রথম দিনের কর্মসূচিতে ছিল পবিত্র খতমে কোরআন, খতমে মজমুয়ায়ে সালাতে রাসুল, খতমে গাউছিয়া শরীফ, মিলাদ মাহফি ও তাবরুক বিতরণ। ২য় দিন শনিবারের কর্মসূচিতে ছিল পবিত্র খতমে গাউসিয়া শরীফ, মিলাদ মাহফিল, আখেরী মোনাজাত ও তাবরুক বিতরণ। ২য় দিনের মাহফিল উদ্বোধন করেন নোয়াপাড়া তাহেরীয়া সুন্নিয়া মাদ্রাসা পরিচালনা কমিটির সাধারণ সম্পাদক বাবুল মিয়া মেম্বার। নোয়াপাড়া ইউনিয়ন গাউসিয়া কমিটির সভাপতি অধ্যক্ষ ওরম ফারুক মাস্টারের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি ছিলেন ঢাকা কাদেরীয়া তৈয়্যবীয়া আলিয়া মাদ্রাসার মুহাদ্দিস আল্লামা জসিম উদ্দিন আল আজহারী। প্রধান বক্তা ছিলেন রাঙ্গুনীয়া রাণীরহাট আল আমিন মাদ্রাসার আরবী প্রভাষক আল্লামা আবুল কালাম বয়ানী। সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক মুহাম্মদ কামাল উদ্দিনের সঞ্চালনায় মাহফিলে বিশেষ অতিথি ছিলেন দক্ষিণ রাউজান গাউসিয়া কমিটির প্রধান উপদেষ্টা সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান মনিরুল ইসলাম, দক্ষিণ রাউজান গাউসিয়া কমিটির সভাপতি আলহজ্ব আবু বক্কর সওদাগর, সিনিয়র সহ-সভাপতি অধ্যাপক সৈয়দ জামাল উদ্দিন, সাধারণ সম্পাদক মুহাম্মদ হানিফ, জেলা গাউসিয়া কমিটির সদস্য আজম আলী, নোয়াপাড়া তাহেরীয়া সুন্নীয়া মাদ্রাসার সভাপতি জাহেদুল ইসলাম, আজিজুল হক, মাওলনা অলিয়র রহমান আল কাদেরী, মাওলানা সৈয়দ ফজল আকবর, মাওলানা আবুল কাশেম রেজবী, ওয়াহিদুল আলম সুজন, ফিরোজুল ইসলাম চৌধুরী, মফিজুল ইসলাম মেম্বার। তাকরীর করেন নোয়াপাড়া তাহেরীয়া সুন্নিয়া মাদ্রাসার অধ্যক্ষ মাওলানা সৈয়দ শওকত হোসেন রেজবী, মাওলানা সালাহ উদ্দিন, মাওলানা মহিউদ্দিন, মাওলানা তারেকুল ইসলাম। অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন রাউজান উপজেলা দক্ষিণ গাউসিয়া কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক জাহেদুল হক, নোয়াপাড়া ইউনিয়ন গাউছিয়া কমিটির যুগ্ম সম্পাদক মুহাম্মদ ইউনুছ, সহ-সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ মুহাম্মদ ইউসুফ উদ্দিন, অর্থ সম্পাদক আব্দুল্লাহ আল মামুন, শায়ের রবিউল হোসাইন রাকিব প্রমুখ। মাহফিলে বক্তারা বলেন, রাসুলে পাক (দ.) ও তার আওলাদগনদের ভালোবাসা ঈমানের পুর্ব র্শত। তাই সকল মুসলিমদের উচিত তাদের প্রতি ভালোবাসা রেখে দ্বীনের প্রতি অবিচল থাকা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *