লিভার সিরোসিসের ঝুঁকি কমায় কফি

অনলাইন ডেস্ক : লিভারের কাজ সব বর্জ্য পদার্থ বের করে শরীরকে সুস্থ রাখা। শরীরের অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ এই অঙ্গটির গুরুতর অসুখের নাম হচ্ছে-লিভার সিরোসিস। এ রোগ হলে লিভার পুরোপুরি অকেজো হয়ে পড়ে। অর্থাৎ লিভার তার স্বাভাবিক কর্মক্ষমতা হারায়, যার ফলে বাড়ে মৃত্যুঝুঁকি।

খুব সহজেই এ ঝুঁকি থেকে সুরক্ষা পাওয়া যায়। সাম্প্রতিক এক গবেষণায় দেখা গেছে, লিভার সিরোসিসের ঝুঁকি কমাতে সহায়তা করে কফি।

গবেষণাটি করে ইংল্যান্ডের সাউথহ্যাম্পটন ইউনিভার্সিটির ড. অলিভার কেনেডির নেতৃত্বাধীন গবেষণা দল।

প্রায় চার লাখ ৩০ হাজার অংশগ্রহণকারীর মধ্যে গবেষণাটি চালিয়েছিলেন গবেষকরা। এ গবেষণায় অংশগ্রহণকারীদের মধ্যে ১ হাজার ৯৯০ জন লিভার সিরোসিসে আক্রান্ত।

ড. কেনেডি অংশগ্রহণকারীদের মধ্যে পরীক্ষা চালিয়ে দেখেছেন, যারা রোজ দুই কাপ কফি পান করেন, তাদের লিভার সিরোসিসের ঝুঁকি প্রায় ৪৪ শতাংশ কমে যায়।

মোট ৯ ভাগে ভাগ করে ড. কেনেডি ও তার গবেষক দল এ গবেষণা চালান, যার মধ্যে আটটিতে দেখা গেছে-কফি লিভার সিরোসিসের ঝুঁকি কমাতে সাহায্য করে।

মার্কিন চিকিৎসা গবেষণা কেন্দ্র ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব হেলথের গবেষকরাও এ ব্রিটিশ গবেষণা রিপোর্টের সঙ্গে একমত।

গবেষণার বিস্তারিত প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, রোজ এক কাপ কফি পান করলে লিভার সিরোসিসের ঝুঁকি ২২ শতাংশ পর্যন্ত কমে যায়।

দুই কাপ কফি ৪৩ শতাংশ পর্যন্ত ঝুঁকি কমাতে সক্ষম। তিন কাপ কফিতে কমে প্রায় ৫৭ শতাংশ ঝুঁকি এবং চার কাপ কফি পান করলে লিভার সিরোসিসের ঝুঁকি কমে ৬৫ শতাংশ পর্যন্ত।

তবে ড. কেনেডির মতে, ফিল্টার্ড কফির উপকারিতা, সিদ্ধ করা কফির তুলনায় বেশি হয়। তবে কফির ঠিক কোন উপাদান লিভার সিরোসিসের ঝুঁকি কমাতে সরাসরি কার্যকর, এ বিষয়ে এখনও নিশ্চিত নন ব্রিটিশ গবেষকরা।

সাউথহ্যাম্পটন ইউনিভার্সিটির গবেষকদের মতে, শুধু কফি খেলেই লিভার সিরোসিসের ঝুঁকি কমানো সম্ভব তা কিন্তু নয়। পাশাপাশি সঠিক খাদ্যাভ্যাস ও নিয়ন্ত্রিত জীবনযাত্রাও অত্যন্ত জরুরি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *