সবুজ গড়ার প্রত্যয়ে “দে-ছুট” ভ্রমণ সংঘ’র বৃক্ষরোপণ অভিযান

নিজস্ব প্রতিবেদক : বাংলাদেশের ঐতিহ্যবাহী ভ্রমণ সংগঠন “দে-ছুট” এর উদ্যোগএ ঢাকা জেলার সাভার উপজেলার নামা গেন্ডা গ্রামের জামি’আ ইহসানিয়া আরাবিয়া মাদ্রাসা ও এতিমখানা’র জমিতে বিভিন্ন ফলজ গাছের চারা বপন করে ২০১৮ সালের বৃক্ষরোপণ কর্মসূচীর ৩য় পর্বের দ্বোধন করেন “দে-ছুট” ভ্রমণ সংঘ’র প্রধান প্রতিষ্ঠাতা ও চীফ অর্গানাইজার মো. জাভেদ হাকিম। এ কর্মসূচীতে উপস্থিত ছিলেন সংগঠনের বেস্ট অর্গানাইজার মো. জসিম উদ্দিন, হানিফ, পিন্টু, দে-ছুট এর মর্ডারেটর ফরিদ মাসুম, মাদ্রাসার শিক্ষক হজরত মাওলানা মুফতি মতিউর রহমান ( দাঃমাঃ), মাওলানা হারুন উর রশীদ চৌধুরী সহ ছাত্র-শিক্ষক এবং স্থানীয় গ্রামবাসী।


সংগঠনের প্রতিপাদ্য বিষয়, সবুজে হোক সয়লাব-আমাদের প্রিয় বাংলাদেশ।
শুভেচ্ছা বক্তব্যে মো. জাভেদ হাকিম বলেন, আজকে দেশে গাছ লাগানোর চাইতে কাটার আয়োজন বেশী। সর্বত্র নগরায়নের ছোঁয়া। অথচ আমরা ভাবি না, প্রাকৃতিক সবুজ যদি দিন দিন বিলীন হয়ে যায় তাহলে টিকবে না আমাদের পশুপাখি। হুমকিতে পড়বে মানুষ ও বন্যপ্রাণী। আজকে জলবায়ু পরিবর্তনের অন্যতম প্রধান কারণই হলো বৃক্ষরোপণের চাইতে অবাধ নিধন। তাই তিনি তাদের মত অন্যান্য ভ্রমণ সংগঠনগুলোকেও বৃক্ষরোপণে এগিয়ে আসার আহবান জানান। তিনি সংগঠনের বন্ধুদের প্রতি আশাবাদ ব্যক্ত করে আরো বলেন, তিনি মারা যাবার পরেও যেন বৃক্ষরোপণ অব্যাহত থাকে।

সেই লক্ষে এখন হতে দে-ছুট ভ্রমণ সংঘ যখনি কোথাও ভ্রমণে যাবে তখনি অন্ততপক্ষে একটি গাছের চারা হলেও সেখানে বপন করে আসবে।
চীফ অর্গানাইজার মো.জাভেদ হাকিমের এই প্রত্যাশা বাস্তবায়নের জন্য বেস্ট অর্গানাইজার মো.জসিম উদ্দিন ইনশাআল্লাহ বলে অকুণ্ঠ সমর্থন জানান।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *