সাকিব কি তাহলে ইচ্ছে করেই ফটোসেশন এড়িয়ে গেছেন?

স্পোর্টস রিপোর্টার: বিশ্বকাপ দলের ১৫ সদস্যের মধ্যে অফিসিয়াল ফটোসেশনে ছিলেন ১৪ জন। ছিলেন না দলের সহ-অধিনায়ক সাকিব আল হাসান। অথচ অফিসিয়াল ফটোসেশনের ঘণ্টাখানেক আগেও সাকিব মিরপুরে শের-ই-বাংলা ক্রিকেট স্টেডিয়ামে উপস্থিত ছিলেন। কিন্তু ফটোসেশনের জন্য সবাই যখন প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন ঠিক তখনই স্টেডিয়াম ছেড়ে বাড়ির পথ ধরেন সাকিব! কেন ফটোসেশনে ছিলেন না তিনি সোমবার দুপুরে প্রশ্নটা বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপনও করেছিলেন। কিন্তু তিনি তখন কারো কাছ থেকে কোনো উত্তর পাননি। এমন নয় যে আনুষ্ঠানিক এই ফটোসেশনের ব্যাপারটা সাকিবকে বিসিবি আগে জানায়নি। বাকি সব ক্রিকেটারদের মতো সাকিবকেও আগেভাগেই জানিয়ে দেয়া হয় ফটোসেশনের আগের দিন।

সেল ফোনে মেসেজ এবং ই-মেইলে বিশ্বকাপ দলের সব ক্রিকেটারদের এই ব্যাপারে অবহিত করা হয় বিসিবির তরফ থেকে। অবহিত করা সেই তালিকায় সাকিবের নামও ছিলো। সোমবার বিকেলে সাকিবের অনুপস্থিতির প্রসঙ্গে করা নিজের প্রশ্নের উত্তর রাতে পেলেন বোর্ড সভাপতি। রাতেই বোর্ড সভাপতির সঙ্গে তার বাসায় দেখা করতে যান সাকিব। সেখানেই নিজের অবস্থান ব্যাখা করেন তিনি। সাকিব বোর্ড সভাপতিকে জানান- ‘আমাকে বিসিবি’র পক্ষ থেকে যে মেসেজ জানানো হয়েছিলো সেটা আমি পড়িনি!’

গতকাল বিসিবি সভাপতি সাংবাদিকদের এই প্রসঙ্গে বলেন, ‘সাকিব আমাকে জানিয়েছে, তাকে মেসেজটা দেয়া হয়েছিলো ঠিকই। কিন্তু সে সেটা পড়েনি। আর তাই সে জানতই না যে, ওখানে ফটোসেশন আছে!’ সাকিব যদি বিসিবির পাঠানো মেসেজ না-ই পড়েন, তাহলে তিনি কীভাবে জানলেন যে ওইদিন তাকে স্টেডিয়ামে রিপোর্ট করতে হবে! এ কারণেই প্রশ্ন উঠেছে সাকিব কি তাহলে ইচ্ছে করেই ফটোসেশন এড়িয়ে গেছেন?

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *