সেমিফাইনাল কিন্তু ইতোমধ্যে শুরু হয়ে গেছে : কাদের

অনলাইন ডেস্ক : বিএনপিকে উদ্দেশ্য করে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, আপনাদের সারাজীবন খোয়াবই দেখে যেতে হবে, আন্দোলন আর হবে না। তিনি বলেন, বিএনপির সব রঙিন খোয়াব উবে গেছে। এখন আর আন্দোলন করে কোনো লাভ হবে না। মানুষ এখন নির্বাচনমুখী। নির্বাচনের প্রস্তুতি নিন। সেমিফাইনাল খেলা কিন্তু ইতোমধ্যে শুরু হয়ে গেছে।

আজ সোমবার দুপুরে রাজধানীর মানিক মিয়া এভিনিউয়ে বিআরটিএ’র ভ্রাম্যমাণ আদালতের কার্যক্রম পরিদর্শন শেষে মন্ত্রী এসব কথা বলেন।
সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের উত্তরে ওবায়দুল কাদের বলেন, আগামী নির্বাচনেও জাতীয় পার্টির সঙ্গে জোট হবে কি না, তা এখনই বলা সম্ভব নয়। নির্বাচনের আগে এসব নিয়ে আলাপ হবে। তারপর কার সঙ্গে জোট করা যাবে, তা ঠিক করব।
এরশাদকে উদ্দেশ্য করে তিনি বলেন, আপনারা কতটা আসন চান আমরা সেটা জানি। তাছাড়া আমাদের কাছে তালিকা আছে। এটা তো পত্রিকায় দেওয়ার দরকার নেই।
কোটা আন্দোলনের প্রসঙ্গ টেনে তিনি বলেন, শুনলাম কোটা সংস্কার আন্দোলনে নেতৃত্ব দেওয়া চারজনের একজন ছাত্রশিবির করেন। যদি এমন হয় তবে যেমন কুকুর তেমন মুগুর দেওয়া হবে।
আগামী নির্বাচনে জাতীয় পার্টির সঙ্গে জোট থাকবে কি না প্রশ্নের জবাবে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘জোট হবে কি না, থাকবে কি না, সেটি এই মুহূর্তে বলতে পারছি না। বসাবসি শুরু হয়ে যাবে। জেতার মতো প্রার্থীকে মনোনয়ন দেওয়া হবে।’ সরকার গঠনের সময় মন্ত্রী দেওয়া-না দেওয়া নিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সিদ্ধান্ত দেবেন বলেও জানান মন্ত্রী।
ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিদর্শনের সময় ওবায়দুল কাদের রাস্তায় দাঁড়িয়ে বাস, সিএনজিচালিত অটোরিকশা এবং মোটরসাইকেল থামিয়ে চালক ও যাত্রীদের সঙ্গে কথা বলেন। এ সময় বিকাশ পরিবহন নামের একটি বাসের যাত্রীরা মন্ত্রীর কাছে বাড়তি ভাড়া নেওয়ার অভিযোগ করেন। যাত্রীরা বলেন, বাসটি সরকার- নির্ধারিত ৩২ টাকার ভাড়া নিচ্ছে ৫০ টাকা। এ সময় মন্ত্রী বাসটি আটকের জন্য বি আরটিএর লোকজনকে নির্দেশ দেন। যদিও যাত্রী থাকার কারণে বাসটি ছেড়ে দেওয়া হয়। বাসের নম্বরের সাহায্যে বিআরটিএ পরবর্তী সময়ে বাসমালিকের সঙ্গে যোগাযোগ করবে বলেও ওবায়দুল কাদের জানান।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *