হৃদরোগের ঝুঁকি কমায় পোস্ত দানা

অনলাইন ডেস্ক: রান্নার স্বাদ বাড়াতে বিভিন্ন খাবারে গোটা পোস্ত দানা বা এর পেস্ট ব্যবহার করা হয়। তবে পোস্ত শুধু রান্নায় স্বাদই বাড়ায় না এর অনেক স্বাস্থ্যগুণ রয়েছে। হৃদরোগ থেকে শুরু করে শরীরের বিভিন্ন সমস্যার সমাধানে এই খাদ্য উপাদানটি খুবই কার্যকরী। পোস্ত দানার উৎপত্তি ইউরোপে হলেও এটি এখন সারা বিশ্বেই ব্যবহৃত হয়। পোস্ততে প্রচুর পরিমাণ ক্যালসিয়াম, আয়রন, ম্যাগনেসিয়াম, ম্যাঙ্গানিজ, ফসফরাস, জিঙ্ক এবং মিনারেল রয়েছে যা শরীরের জন্য খুবই দরকারী।

নিয়মিত পোস্ত দানা খেলে যেসব উপকার পাওয়া যাবে-

১. পোস্ত দানা শরীরকে ঠাণ্ডা রাখে।সেই সঙ্গে মুখের আলসার প্রতিরোধ করে। পোস্ত বাটার সঙ্গে চিনি মিশিয়ে খেলে মুখে আলসারের ব্যথায় আরাম পাওয়া যায়।

২. পোস্তয় থাকা ক্যালসিয়াম ও ফসফরাস হাড় শক্তিশালী করতে সাহায্য করে।

৩. পোস্তয় প্রচুর পরিমাণে ফাইবার রয়েছে। এ কারণে এটি কোষ্ঠকাঠিন্য দূর করতেও সহায়তা করে।

৪. পোস্তয় থাকা জিঙ্ক শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়।

৫. শুকনো কাশি সারানোর দারুন ওষুধ পোস্ত। এক চামচ মধুর সঙ্গে এক চামচ পোস্ত নারকেল দুধের সঙ্গে মিশিয়ে খেলে শুকনো কাশি দ্রুত কমে যায়।

৬. পোস্তয় প্রচুর পরিমাণ ফ্যাটি অ্যাসিড রয়েছে।এটি ত্বকের শুষ্কভাব দূর করে ত্বকের আর্দ্রতা বজায় রাখতে সাহায্য করে।

৭. পোস্তয় থাকা ফ্যাটি অ্যাসিড রক্তে খারাপ কোলেস্টেরলের মাত্রা কমাতে সাহায্য করে। সেই সঙ্গে হৃদরোগের ঝুঁকি কমায়।

৮. ক্যালসিয়াম, আয়রন এবং কপার থাকায় মস্তিষ্কের কর্মক্ষমতা বাড়ায় পোস্ত।

৯. অনিদ্রা দূর করতে চায়ের কাপে কয়েকটি পোস্ত দানা মিশিয়ে নিন।ঘুমাতে যাওয়ার অন্তত আধঘণ্টা আগে এই চা খেলে ভাল ঘুম হবে। সূত্র: জি নিউজ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *