আইপিএলে ব্যর্থ হয়ে মুরগি ব্যবসায় ধোনি!

স্পোর্টস ডেস্ক: ভারতীয় ক্রিকেট দলের সবচেয়ে সফল অধিনায়ক মাহেন্দ্র সিং ধোনি। মি. কুল বলেও খ্যাত এই ক্রিকেটার। তবে তিনি ফুরিয়ে গেছেন বলে তার ভক্তরা অভিমত দিচ্ছেন। আর এর কারণ হিসেবে বলা হয়েছে- ক’দিন আগে শেষ হওয়া আইপিএল। ক্রিকেটের সবচেয়ে আলোচিত এই লীগে ধোনির ব্যক্তিগত পারফরম্যান্স শূন্যের কোঠায় নেমে আসে। পাশাপাশি তার দল ব্যর্থ হয়। এরপরই ক্রিকেটবোদ্ধারা ধোনির সমালোচনা শুরু করেন।

ধোনির চেন্নাই সুপার কিংস এবারের আইপিএলে গ্রুপ লিগ থেকেই বিদায় নেয়। ফলে সবাই ধারণা করছেন ফুরিয়ে গেছেন ধোনি। তিনি নিজেও হয়তো বিষয়টি আঁচ করতে পেরেছেন। ফলে ক্রিকেটের চিন্তা মাথা থেকে ঝেরে ফেলে অন্য একটি বিষয়ে মনোযোগী হয়েছেন ধোনি।

আন্তর্জাতিক ক্রিকেটকে বিদায় জানানো এই ক্রিকেটার তার অফুরন্ত সময়কে পোলট্রি ফার্মের ব্যবসায় নাম লিখিয়েছেন। তবে যেই সেই মুরগি নয়; বিরল প্রজাতির দুই হাজার কড়কনাথ মুরগির অর্ডার দিয়েছেন তিনি।

মধ্যপ্রদেশের ঝাবুয়া জেলার এই বিশেষ ধরনের মুরগিগুলো ধোনির ফার্মে পৌঁছে দেয়ার দায়িত্বে রয়েছেন বিনোদ মেধা নামে এক পোলট্রি ফার্ম ব্যবসায়ী। তাকে ইতিমধ্যে অগ্রিম অর্থও দিয়েছেন ধোনি।

ভারতের এক সাক্ষাৎকারে বিনোদ মেধা বলেন, কৃষি বিকাশ কেন্দ্রের মাধ্যমে তিন মাস আগে ধোনির ফার্মের ম্যানেজার আমাদের সঙ্গে যোগাযোগ করেন। আমি গর্বিত ওনার মতো একজন কিংবদন্তি ক্রিকেটারের ফার্মে এই মুরগির ছানা পৌঁছে দেয়ার দায়িত্ব পেয়ে।

এত মুরগি দিয়ে কী করবেন ধোনি? আর এই বিশেষ মুরগিই বা কেন?

জানা গেছে, নিজস্ব পোলট্রি ফার্ম করবেন বলে স্থির করেছেন ধোনি। আর সেটি হবে এই কড়কনাথ মুরগির।

ভারতে কড়কনাথ মুরগির বিশেষ চাহিদা রয়েছে। ভৌগোলিক স্বীকৃতি বা জিআই তকমা পেয়েছে এ প্রজাতিটি। এই মুরগি কুচকুচে কালো রঙের। এমনকি এর হাড়, মাংস সবই কালো। পুষ্টিগুণেও ভরপুর এই মুরগির মাংস।

বিশেষ গুণের এই মুরগির দুই হাজার ছানা আগামী ১৫ ডিসেম্বরের মধ্যে ঝাবুয়ার এক পোলট্রি ফার্ম থেকে ধোনির ফার্মে আসবে বলে জানা গেছে।

তথ্যসূত্র: টাইমস অব ইন্ডিয়া

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *