আত্মহত্যা শেখাতে গিয়ে প্রাণ গেল যুবকের

অনলাইন ডেস্ক: পারিবারিক কলহের জেরে গলায় ফাঁস নিয়ে আত্মহত্যা করেছেন মো. শোয়েব আহমেদ (২৮) নামে এক যুবক। মজার ছলে ওই আত্মহত্যা বন্ধুদের শেখাতে গিয়ে প্রাণ গেল মো. নাইমুর রহমান নয়ন (২২) নামে আরো এক যুবকের। রোববার মধ্যরাত ও সোমবার ভোরে রাঙামাটির কাপ্তাইয়ে কাপ্তাই ইউনিয়নের প্রজেক্ট এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

নিহত শোয়েব কাপ্তাই পানি উন্নয়ন বোর্ডের গাড়ি চালক খয়েজ আহমদ তরুনের ছেলে। তিনি পানি উন্নয়ন বোর্ড উচ্চ বিদ্যালয়ে বিনাপারিশ্রমিকের শারীরিক শিক্ষক হিসেবে কর্মরত ছিলেন। নিহত নাইমুর রহমান ফরহাদ হোসেনের ছেলে। নিহতরা কাপ্তাই ইউনিয়নের প্রজেক্ট এলাকার বাসিন্দা।

কাপ্তাই থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. নাছির উদ্দিন বলেন, ‘রাতে প্রজেক্ট এলাকায় পারিবারিক কলহের জেরে শোয়েব গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেন। অন্যদিকে নাইমুর রহমান নামের এক যুবকও গলায় ফাঁস দিয়ে মারা যান।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, শোয়েবের মৃত্যুর পর কিভাবে আত্মহত্যা করে বন্ধুদের সঙ্গে সেই গল্প করছিলেন নাইমুর রহমান নয়ন। একপর্যায়ে কিভাবে আত্মহত্যা করতে হয় বন্ধুদের তা দেখাতে গিয়েই চূড়ান্ত ফাঁস পড়ে যায় নয়নের গলায়। পরে দ্রুত কাপ্তাই উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেয়া হলে কর্তব্যরত ডাক্তাররা তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *