আবরার হত্যা : বুয়েটের সব ভবনে তালা দেয়ার হুঁশিয়ারি

স্টাফ রিপোর্টার : কাল শুক্রবারের মধ্যে শিক্ষার্থীদের সঙ্গে উপাচার্য অধ্যাপক সাইফুল ইসলাম কথা না বললে বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) সব ভবনে তালা ঝুলানোর হুঁশিয়ারি দিয়েছেন আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীরা। আজ বৃহস্পতিবার বেলা সাড়ে ১১টায় সংবাদ সম্মেলনে তারা এ ঘোষণা দেন।

আবরার হত্যাকাণ্ডের জেরে আজ চতুর্থদিনের মতো আন্দোলন অব্যাহত রেখেছেন বিক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীরা। এদিন আন্দোলনকারীদের পক্ষ থেকে আল্টিমেটাম দেয়া হয়- বুয়েটের ভিসি অধ্যাপক ড. সাইফুল ইসলাম যদি আগামীকাল শুক্রবার ২টার মধ্যে তাদের সঙ্গে দেখা না করেন তাহলে বুয়েটের সব ভবনে তালা ঝুলিয়ে দেয়া হবে।

দাবি পূরণ না হলে সকল প্রশাসনিক কার্যক্রম বন্ধ রাখতে বাধ্য করা হবে বলেও হুঁশিয়ারি দেন আন্দোলনকারীরা। সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, ‌‘দাবি না মানলে আমরা বাধ্য হবো ১৪ তারিখ যেন কোনো ভর্তি পরীক্ষা না হয় তার ঘোষণা দিতে।’

শিক্ষার্থীরা বলেন, ‌‘আমরা আশা করছি একাডেমিক কাউন্সিল ভর্তি পরীক্ষার বিষয়ে একটি অফিসিয়াল স্টেটমেন্ট দেবে। কারণ আমরা চাই না দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে আসা শিক্ষার্থীরা কোনো ধরনের সমস্যায় পড়ুক।’

সংবাদ সম্মেলনে আরও বলা হয়, শিক্ষার্থীদের ১০ দফা দাবি বিষয়ে প্রশাসন থেকে এখন পর্যন্ত কোনো কিছু অবহিত করা হয়নি যা অত্যন্ত দুঃখজনক। সেই সঙ্গে বুধবার কুষ্টিয়ায় ফাহাদের পরিবারের ওপর ন্যাক্কারজনক হামলার তীব্র নিন্দা জানানো হয়।

এদিকে হত্যার ঘটনার পর উপাচার্য শিক্ষার্থীদের সামনে না আসায় ক্ষোভ জানান শিক্ষার্থীরা। পরে উপাচার্য অধ্যাপক সাইফুল ইসলাম মঙ্গলবার বিকেল ৫টার মধ্যে সশরীরে এসে এ বিষয়ে জবাবদিহি না করলে কঠোর কর্মসূচি দেয়ার হুঁশিয়ারি দেন তারা।

এরপর প্রায় ৪০ ঘণ্টা পর মঙ্গলবার সন্ধ্যা ৬টার পর উপাচার্য শিক্ষার্থীদের সামনে আসেন। ওই সময় শিক্ষার্থীদের তোপের মুখে পড়েন উপাচার্য। এদিন তাকে প্রায় ৪০ মিনিট অবরুদ্ধও করে রাখেন শিক্ষার্থীরা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *