আর্জেন্টিনাকে হারিয়ে কোপা আমেরিকার ফাইনালে ব্রাজিল

স্পোর্টস ডেস্ক : বেলো হরিজন্তের মিনেইরো স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত সেমিফাইনালে ২-০ গোলে আর্জেন্টিনাকে হারিয়ে কোপা আমেরিকার ফাইনালে উঠেছে ব্রাজিল।

সুযোগ কাজে লাগাতে পারলে আর্জেন্টিনা খেলার ১২ মিনিটে এগিয়ে যেতে পারতো। লেয়ান্দ্রো পারেদেসের আচমকা নেয়া দূরপাল্লার শট ক্রসবার ঘেঁষে বেরিয়ে গেলে বেঁচে যায় ব্রাজিল। এরপর মেসির গোলের চেষ্টাও ক্রসবারে লেগে ফিরে আসে।

খেলার শুরুর দিকে গোছানো এক আক্রমণে দলকে এগিয়ে দেন গাব্রিয়েল জেসুস। দ্বিতীয়ার্ধে রবের্ত ফিরমিনোর গোলে রাখেন মূখ্য ভূমিকা। তরুণ এই ফরোয়ার্ডের নৈপুণ্যে আর্জেন্টিনাকে হারিয়ে কোপা আমেরিকার ফাইনালে উঠে ব্রাজিল।

খেলার ৭ মিনিটেই প্রথম উল্লেখযোগ্য সুযোগ পেয়েই এগিয়ে যায় তিতের দল। ডান দিক দিয়ে আক্রমণে উঠে দানি আলভেস দুজনকে কাটিয়ে সামনে রবের্তো ফিরমিনোকে পাস দেন। আর লিভারপুলের এই ফরোয়ার্ডের বাড়ানো বল ছোট ডি-বক্সের মুখে পেয়ে অনায়াসে জালে পাঠান জেসুস।

৩০তম মিনিটে ভাগ্যের ফেরে গোলবঞ্চিত হয় আর্জেন্টিনা। মেসির ফ্রি-কিকে আগুয়েরোর নেয়া হেড ক্রসবারে লাগে।

দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতে আক্রমণ-পাল্টা আক্রমণে জমে ওঠা লড়াইয়ে আগুয়েরোর বাড়ানো বল ডি-বক্সে পেয়ে দুর্বল ভলি মারেন লাউতারো মার্তিনেস। ছয় মিনিট পর ভালো জায়গায় বল পেয়েও উড়িয়ে মেরে হতাশ করেন ফিলিপে কৌতিনিয়ো।

৫৭তম মিনিটে আবারও ভাগ্যের ফেরে গোলবঞ্চিত হয় আর্জেন্টিনা। বাঁ দিক থেকে মেসির বাঁ পায়ের জোরালো শট পোস্টে বাধা পায়।

৭১তম মিনিটে ফিরমিনোর গোলে আরো এগিয়ে যায় ব্রাজিল। বল এগিয়ে দেন জেসুস। মাঝমাঠ থেকে ম্যানচেস্টার সিটির এই স্ট্রাইকার একজনকে কাটিয়ে বল পায়ে ছুটে একজনকে গতিতে পেছনে ফেলে এবং সবশেষ ডি-বক্সে ঢুকে আরেক জনকে ফাঁকি দিয়ে বাড়ান ডান দিকে। ফাঁকায় বল পেয়ে বাকিটা অনায়াসে সারেন লিভারপুলের ফরোয়ার্ড ফিরমিনো।

এই গোলেই জয় অনেকটাই নিশ্চিত হয়ে যায় স্বাগতিকদের। বাকীটা সময় আর্জেন্টিনা শুধু চেষ্টাই করে গেছে, গোলের দেখা আর পায়নি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *