একটুর জন্য বিশ্বরেকর্ড হলো না মাহমুদউল্লাহ-তাসকিনের

স্পোর্টস রিপোর্টার: এ যেন এক রূপকথার গল্প। দলের এমন অবস্থায় ব্যাটিংয়ে নেমে হাল ধরার ঘটনা আছে আগেও মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের। কিন্তু এবার সঙ্গী হিসেবে যাকে পেলেন, সেই তাসকিন হয়ে উঠলেন সহযোদ্ধা। তিনি যে ব্যাটিংটাও ভালোই করতে পারেন, সেটা সবাইকে জানান দিলেন হারারে স্পোর্টস গ্রাউন্ডে।

এর আগে টেস্টের ১৩ ইনিংসে তাসকিনের সর্বোচ্চ রান ছিল মাত্র ৩৩। সেটা ছাড়িয়ে ক্যারিয়ারের প্রথম হাফসেঞ্চুরি তো করলেনই, নাম লেখালেন বেশ কয়েকটি রেকর্ডে।

সুযোগ ছিল নবম উইকেটে বিশ্বরেকর্ড গড়ারও। মাত্র ৪ রানের জন্য সেটা মিস হয়ে গেল। এর আগে টেস্টে এই উইকেটে সর্বোচ্চ জুটিটি ছিল ১৯৫ রানের।

১৯৯৮ সালে জোহানেসবার্গে পাকিস্তানের বিপক্ষে নবম উইকেটে ১৯৫ রানের বিশ্বরেকর্ড গড়েছিলেন দক্ষিণ আফ্রিকার মার্ক বাউচার আর সিমকক্স। মাহমুদউল্লাহ-তাসকিনের জুটিটি থামল ১৯১ রানে। মাত্র ৪ রানের আফসোস থাকবে এটাই স্বাভাবিক।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *