করোনা সংকট নিয়ে দুশ্চিন্তায় জার্মান মন্ত্রীর আত্মহত্যা

অনলাইন ডেস্ক : জার্মানির হেসে অঙ্গরাজ্যের অর্থমন্ত্রী থমাস শেফার মারা গেছেন। শনিবার এক রেললাইন থেকে তার মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। করোনা ভাইরাসের প্রভাবে সৃষ্ট অর্থনৈতিক সংকট নিয়ে ‘গভীর উদ্বেগ’ থেকে তিনি আত্মহননের পথ বেছে নিয়েছেন বলে ধারণা করা হচ্ছে। হেসে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী ভলকারর বৌফিয়ের রোববার এমনটা জানিয়েছেন। এ খবর দিয়েছে গাল্ফ নিউজ।

খবরে বলা হয়, শনিবার এক রেললাইনের উপর থেকে ৫৪ বছর বয়সী শেফারের মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়। ওয়িসবাদেন শহরের প্রসিকিউশনের কার্যালয় জানিয়েছে, তাদের বিশ্বাস শেফার আত্মহত্যা করেছেন। বৌফিয়ের এক বিবৃতিতে জানান, আমরা হতভম্ভ, বিশ্বাস করতে পারছি না। সবচেয়ে বেশি আমরা ব্যথিত।

জার্মানির অর্থনৈতিক রাজধানী ফ্র্যাংকফুর্ট হেসে রাজ্যে অবস্থিত।
ডয়েচে ব্যাংক ও কমার্জ ব্যাংকের মতো শীর্ষ ঋণদাতা প্রতিষ্ঠানগুলোর সদরদপ্তরও সেখানে অবস্থিত।
শেফার টানা ১০ বছর ধরে হেসের অর্থ বিভাগের প্রধান হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন। করোনা ভাইরাস জার্মানিতে সংক্রমিত হওয়ার পর থেকেই তিনি এর অর্থনৈতিক প্রভাব কমাতে দিনরাত কাজ করে যাচ্ছিলেন। তিনি জার্মান চ্যান্সেলর অ্যাঙ্গেলা মার্কেলের সিডিইউ দলের সদস্য ছিলেন।

বৌফিয়ের বলেন, আমাদের ভেবে নিতে হবে যে তিনি গভীরভাগে উদ্বিগ্ন ছিলেন। এরকম কঠিন সময়ে আমাদের তার মতো একজনের প্রয়োজন ছিল।
শেফার হেসেজুড়ে বেশ জনপ্রিয় ছিলেন। তাকে বৌফিয়েরের উত্তরসূরী হিসেবে বিবেচনা করা হতো।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *