খেলাধূলা ও সংস্কৃতি চর্চা শিক্ষার্থীর মানসিক বিকাশ ঘটায়

আবুল কালাম আজাদ ভূইয়া, কুমিল্লা থেকে : নৃত্য, আবৃতি, খেলাধূলার মধ্য দিয়ে রূপসদী বর্ণমালা কিন্ডার গার্টেন বিদ্যালয়ে ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়েছে।

মঙ্গলবার দিনব্যাপী বি-বাড়ীয়া জেলা বাঞ্ছারামপুর উপজেলা রূপসদী বর্ণমালা কিন্ডার গার্টেন বিদ্যালয়ের ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের সভাপতি মোঃ সহিদ মিয়ার সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন, বাঞ্ছারামপুর উপজেলা আ’লীস সহ-সভাপতি ও রূপসদী জামিলা মুনছুর আলী উচ্চ বিদ্যালয়ের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা ফরিদ উদ্দিন আহাম্মেদ বিশেষ অতিথি বাঞ্ছারামপুর উপজেলা শিক্ষা সহকারী কর্মকর্তা গাজী মোঃ শাহ্রাজ, বাঞ্ছারামপুর কিন্ডার গার্টেন প্রি ক্যাডেট স্কুল ফাউন্ডেশন সাধারণ সম্পাদক মোঃ শামীম নূর ইসলাম, রূপসদী ইউপি’র আ’লীগ সাধারণ সম্পাদক মোঃ মফিরুল ইসলাম, সাংগঠনিক সম্পাদক মোঃ মিদন মিয়া, রূপসদী দক্ষিণপাড়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় প্রধান শিক্ষক মোঃ মঈনুদ্দিন, রূপসদী জামিলা মুনছুর আলী উচ্চ বিদ্যালয় প্রধান শিক্ষক মোঃ আবুল বাসার, রূপসদী ইউনিয়ন বিএনপি’র সাধারণ সম্পাদক মোঃ হানিফ মিয়া, রূপসদী বালিকা আলী উচ্চ বিদ্যালয় ভারপাপ্ত প্রধান শিক্ষক মোঃ সাইদুর রহমান, সহকারী শিক্ষক মোঃ আশিকুর রহমান, রূপসদী ইউপি’র সদস্য মোঃ ফিরোজ মিয়া, রূপসদী জামিলা মুনছুর আলী উচ্চ বিদ্যালয় সদস্য মোঃ আঃ হাকিম সরকার, মোঃ মোখলেছুর রহমান, মোঃ অহিদ মিয়া, সমাজসেবক মোঃ নুরুল ইসলাম, ব্যবসায়ীক মোঃ শাহীন পাভেজ, মোঃ আব্দুল আজিজ, মোঃ শাহজালাল, মোঃ আলাল মিয়া, মোঃ আনারুল ইসলামসহ আরো উপস্থিত ছিলেন, ছাত্রছাত্রীদের অভিভাবকগণ ও সমাজের মা ও বোনেরা।

অনুষ্ঠানটির সার্বিক তত্ত¡াবধানে ছিলেন রূপসদী বর্ণমালা কিন্ডার গার্টেন স্কুলের প্রধান শিক্ষক মোঃ সানাউল্লাহ, শিক্ষক মিসেস খাদিজা আক্তার খুকুমনি, মিসেস জাহানারা বেগম, মিসেস শাহিনুর বেগম, মিসেস নিপা আক্তার, মোঃ তুষার আহাম্মেদ, মোঃ রুমান আহাম্মেদ, মোসাঃ নিপু আক্তার, মিসেস মুক্তা বেগম, মোসাঃ পিংকি আক্তার।

অনুষ্ঠানে বক্তারা বলেন, রূপসদী বর্ণমালা কিন্ডার গার্টেন শ্রেণিকক্ষে আলো-বাতাসের আগমনে স্বাস্থ্য ভালো থাকে। কক্ষগুলো পরিবেশবান্ধব। আনন্দের মাধ্যমে শিক্ষাদান, শিক্ষার প্রতি স্থায়ী ও ইতিবাচক মনোভাব সৃষ্টি, যুক্তিযুক্ত চিন্তার বিকাশ ও দলীয়ভাবে শিক্ষাগ্রহণ ও -এ উদ্দেশ্যকে সামনে রেখে রূপসদী বর্ণমালা কিন্ডার গার্টেন-এর যাত্রা। প্রাথমিক শিক্ষার মান উন্নত করতে হলে সবার আগে শিক্ষকদের সামর্থ্য, দক্ষতা ও আন্তরিকতা নিশ্চিত করতে হবে। বিদ্যালয়ের ব্যবস্থাপনা কমিটির ভূমিকা নিশ্চিত করতে হবে। পাঠককে আনন্দময় করে ছাত্রছাত্রী মাঝে উপস্থাপন করতে হবে। এছাড়া শিক্ষক-অভিভাবক সম্পর্ক সুন্দও হবে হবে।
তারা আরো বলেন, ছাত্রছাত্রীদের নাচ-গান-অভিনয়-চিত্রাঙ্কন, আলোচনা ও কথোপকথন ভিত্তিক ইংরেজী শেখানো পাশাপাশি বিভিন্ন ধরণের হাতের কাজ শেখানো হচ্ছে। প্লে থেকে পঞ্চম শ্রেনী পর্যন্ত পাঠদান করা হয়।

বক্তারা বলেন, শিশুদের নিয়মিত খেলাধূলা ও সংস্কৃতি চর্চার মধ্যদিয়ে একজন শিক্ষার্থীরপরিপূর্ণ মানসিক বিকাশ সম্ভব হয়ে উঠে। অনুষ্ঠান শেষে ছাত্রছাত্রী ও অভিভাবকদেরকে দুপুরে বিরানী প্যাকেট বিতরণ করা হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *