গার্দিওলার সঙ্গে কথা বলেই বার্সা ছাড়ার সিদ্ধান্ত মেসির!

স্পোর্টস ডেস্ক: গতকাল মঙ্গলবার দীর্ঘদিনের ক্লাব বার্সেলোনা ছাড়ার ঘোষণা দিয়েছেন লিওনেল মেসি। তার এ ঘোষণায় মেসিভক্তরা বিস্মিত হয়েছেন।

সংবাদ মাধ্যম ইএসপিএন এফসি জানিয়েছে, গত সপ্তাহেই ম্যানচেস্টার সিটি কোচ পেপ গার্দিওলার সঙ্গে ফোনে কথা বলেন মেসি। সেই কথোপকথনে মেসির ম্যান সিটিতে যোগ দেয়ার সম্ভাবনা নিয়ে আলোচনা হয়।

এর আগেও কয়েকবার আর্জেন্টাইন সুপারস্টারকে দলে ভেড়ানোর চেষ্টা চালিয়েছে ম্যানচেস্টার সিটি। কিন্তু মেসি কখনো বার্সা ছাড়তে চাননি। এবার যেহেতু শৈশবের ক্লাবের সঙ্গে সম্পর্ক ছিন্ন করার সিদ্ধান্তটা নিয়েই ফেলেছেন তিনি, কাজেই আশা জেগেছে ম্যান সিটি ভক্তদের মাঝে। আর গত সপ্তাহে মেসি-গার্দিওলার কথোপকথনের পর আরো আশাবাদী হয়ে উঠেছে সিটিজেনরা।

ম্যানচেস্টার সিটি এর আগে একবার উয়েফার আর্থিক নীতিমালা ভঙ্গের কারণে শাস্তি পাওয়ায় বেশ সতর্ক। মেসিকে কেনার ব্যাপারে সাবধানী ভূমিকায় ক্লাবটি।
ক্লাব চেয়ারম্যান খালদুন আল মুবারক বলেন, ‘আমরা এ বিষয়ে খুবই সচেতন রয়েছি। দলের শক্তি বাড়াতে আমরা সবকিছুই করব। এরই মধ্যে আমরা নাথান একে ও ফেরান তোরেসের সঙ্গে চুক্তি করেছি। আরো কয়েকজনকে দলে ভেড়াব। আমাদের একটা পরিকল্পনা রয়েছে। সে অনুযায়ী সবকিছু করা হবে।’

বার্সেলোনার সঙ্গে মেসির চুক্তির একটি শর্ত ছিল, মেসি চাইলেই প্রতি মৌসুম শেষে তার চুক্তিটা কাট-ছাঁট করতে পারবেন। অর্থাৎ ক্লাব ছাড়ার একটা অপশন ছিল তার হাতে। আর ক্লাব ছাড়তে না চাইলে এক মৌসুমের জন্য আবার চুক্তিবদ্ধ হবেন। এতে বার্সেলোনার অনিচ্ছা সত্ত্বেও নতুন দলবদল মৌসুমে মেসিকে কেউ কিনতে চাইলে তার রিলিজ ক্লজ ৭০০ মিলিয়ন ইউরো দিয়ে তবেই নিতে হবে তাকে।

আর্জেন্টাইন অধিনায়কের বার্ষিক বেতনের অঙ্কটাও বেশ বড় (৮.৩ মিলিয়ন ইউরো)। তবে মেসির বাই আউট ক্লজ ও বড় অঙ্কের বেতন দুটোই দেয়ার সক্ষমতা আছে ম্যানচেস্টার সিটির। সবচেয়ে বড় কথা হলো সেখানে রয়েছেন মেসির প্রিয় কোচ পেপ গার্দিওলা।

Check Also

বার্সেলোনার ব্যাপারে মনস্থির করেছেন মেসি!

স্পোর্টস ডেস্ক: শেষ পর্যন্ত বার্সেলোনা ছাড়া নাও হতে পারে মেসির। কারণ ক্লাবের সঙ্গে লিওনেল মেসির …

মেসি-বার্সা বিচ্ছেদ

স্পোর্টস ডেস্ক: বার্সেলোনার সঙ্গে সম্পর্ক ছিন্ন করছেন লিওনেল মেসি। আর্জেন্টাইন ফুটবল সুপার স্টার নিজেই জানিয়েছেন …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *