ছাত্রলীগ নেতার বাড়িতে আওয়ামী লীগ নেতার হামলা

স্টাফ রিপোর্টার : কুমিল্লার লাকসামে মুদাফরগঞ্জ উত্তর ইউনিয়নের গ্রাম কাঠালিয়ায় এক ছাত্রলীগ নেতার বাড়িতে সেখানকার স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতা ও তার সহযোগীরা হামলা চালিয়েছে। তাদের হামলায় ছাত্রলীগ নেতার বাড়িতে ভাঙচুর চালানো হয়েছে এবং এ ঘটনায় নারী ও শিশু আহত হয়েছেন। এ হামলার ঘটনায় ছাত্রলীগ নেতার মা বাদী হয়ে লাকসাম থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন।

মামলার অভিযোগপত্র এবং স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, একটি শালিসকে কেন্দ্র করে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের আহ্বায়ক কমিটির সদস্য বাবুল মিয়া এবং মুদাফরগঞ্জ কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি জাহিদ হোসেনের সঙ্গে কথা কাটাকাটি হয়। সে কথা কাটাকাটি থেকে পরে তারা বাকবিতণ্ডায় জড়িয়ে পরেন। এর জের ধরেই গতকাল সোমবার রাতে বাবুল মিয়া ও তার ভাই জসিমসহ ১৭/১৮ জনের একটি দল জাহিদ হোসেনের বাড়িতে হামলা চালায়। ধারালো দেশীয় অস্ত্র এবং লোহার রড নিয়ে তারা জাহিদ হোসেনের বাড়িতে হামলা চালায়। তাদের হামলায় বসতঘরের জানালার গ্লাস, আলমিরা, সোফাসহ আসবাবপত্র তছনছ ও টিনের বেড়া, রান্নাঘর ভেঙ্গেচুরে একাকার হয়ে যায়। এ হামলায় জাহিদের মা মিনোয়ারা বেগম (৫০) ও তার ভাগ্নি সিফাত হোসেন (১৭ মাস) আহত হয়। এ ঘটনায় বাবুল ও জসিমসহ ছয়জনের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাতনামা আরও ১২ জনের বিরুদ্ধে লাকসাম থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।

তবে এই হামলার ঘটনাটি অস্বীকার করেছে আওয়ামী লীগ নেতা বাবুল মিয়া। তার দাবি, এ ঘটনার সঙ্গে তিনি জড়িত নন। প্রতিহিংসার বশবর্তী হয়ে তারা নিজেরাই এ ঘটনা ঘটিয়েছে।

এই হামলার ঘটনায় মুদাফরগঞ্জ উত্তরের ইউপি চেয়ারম্যান শাহীদুল ইসলাম শাহীন জানান, ভাঙচুরের ঘটনাটি আমি শুনেছি। ঘটনাস্থল পরিদর্শনে গিয়ে আমি বিষয়টি মীমাংসা করে দেওয়ার চেষ্টা করব। লাকসাম থানার এসআই আবু নাসের ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে জানান, অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। ঘটনার তদন্ত সাপেক্ষে আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *