জোভান-ফারিণের প্রেম ও হেঁয়ালির গল্প

বিনোদন রিপোর্টার: ‘লাইফ ইজ বিউটিফুল’ নাটকটির চিত্রনাট্য একটি মিষ্টি প্রেমের গল্পকে কেন্দ্র করে তৈরি হয়েছে। এর অনন্য বৈশিষ্ট্য হচ্ছে নায়ক-নায়িকার মধ্যকার চমৎকার সব সংলাপ।

কেন্দ্রীয় চরিত্র রূপা ও নায়ক অরণ্য চৌধুরীর মিষ্টি প্রণয় দিয়ে নাটকটি শুরু হলেও একসময়ে এসে রূপা অরণ্যের প্রতি ক্ষুব্ধ হয়ে উঠবে। কোনোভাবেই অরণ্যের প্রতি বিশ্বাস ও আস্থা রাখতে পারবে না। যার ফলে রূপা তাদের সম্পর্কের ইতি টানতে চাইবে। কেননা পুরো গল্পটি জুড়েই থাকবে নায়ক অরণ্যের হেঁয়ালিপনা ও কথার মারপ্যাঁচ।

অন্যদিকে অরণ্যও রূপাকে প্রচণ্ডভাবে ভালোবাসবে কিন্তু দুর্বিষহ বেকার জীবন ও জীবনের টানাপড়েনের এই কঠিন সময়ে রূপাকে উৎফুল্ল রাখতেই অরণ্য নানা রকম ফাজলামো ও বাঁদরামো দিয়ে তাকে ব্যতিব্যস্ত রাখতে চাইবে। কিন্তু শেষমেশ রূপার বিয়ে ঠিক হতেই অরণ্য প্রচণ্ডভাবে ভেঙে পড়বে।

শেষে গল্পটি মোড় নেবে অন্য পরিণতির দিকে।

সিএমভি প্রযোজিত এই নাটকটির চিত্রনাট্য লিখেছেন মঈনুল সানু এবং নির্মাণ করেছেন রুবেল হাসান। এর প্রধান দুই চরিত্রে অভিনয় করেছেন জোভান ও তাসনিয়া ফারিণ।

নির্মাতা রুবেল হাসান বলেন, ‌‘নাটকটির পুরোটাজুড়ে প্রেম, বিরহ ও হেঁয়ালি দিয়ে সাজানো। জোভান ও ফারিণ জুটি হিসেবে অসাধারণ অভিনয় করেছেন এতে। আশা করছি দর্শকরা উপভোগ করবেন।’

নাটকটি শিগগিরই উন্মুক্ত হচ্ছে সিএমভি’র ইউটিউব চ্যানেলে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *