ঝালকাঠিতে সাংবাদিক নির্যাতনের প্রতিবাদে মানববন্ধন

গাজী মো. গিয়াস উদ্দিন, ঝালকাঠি: ঝালকাঠি প্রেস ক্লাবের সদস্য ডেইলি স্টার ঝালকাঠি জেলা প্রতিনিধি জহিরুল ইসলাম জুয়েলের ওপর হামলা তাঁর নামে মিথ্যা মামলা দায়ের এবং প্রথম আলো বাউফল উপজেলা প্রতিনিধি এবিএম মিজানুর রহমান হত্যা মামলায় ষড়যন্ত্রমূলক আসামি করার প্রতিবাদে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে।

রোববার সকাল ১১ টায় ঝালকাঠি প্রেস ক্লাব ও প্রথম আলো বন্ধু সভার আয়োজনে প্রেস ক্লাবের সামনে ঘণ্টাব্যাপী মানববন্ধনে সাংবাদিক ও সুশিল সমাজের প্রতিনিধিরা অংশগ্রহণ করে। মানববন্ধনে সারা দেশে সাংবাদিক নির্যাতন এবং মিথ্যা মামলা দায়ের করে গণমাধ্যম কর্মীদের হয়রানী বন্ধের দাবি জানিয়ে বক্তব্য দেন ঝালকাঠি প্রেস ক্লাবের সভপতি মুক্তিযোদ্ধা চিত্তরঞ্জন দত্ত, সাধারণ সম্পাদক মো. ক্ধসঢ়;কাস সিকদার, বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক প্রশান্ত দাস হরি, ঝালকাঠি প্রেস ক্লাবের ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক সম্পাদক অলোক সাহা, সদস্য শফিউল ইসলাম সৈকত, প্রথম আলোর জেলা প্রতিনিধি আ.স.ম মাহমুদুর রহমান পারভেজ, প্রথম আলো বন্ধু সভার সভাপতি শাকিল হাওলাদার রনি । বক্তারা সাংবাদিকদের উপর হামলাকারীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি ও মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবি  জানান । 

গত ৫ জুন রাজাপুর উপজেলার স্বস্থ্য কমপ্লেক্স এলাকায় সোহাগ ক্লিনিকের মালিক ও কর্মচারিরা সংবাদ প্রকাশের জের ধরে জহিরুল ইসলাম জুয়েলের উপর হামলা করে  উল্টো তার বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা দায়ের করে। এ ছাড়া গত ২৪ মে বাউফল পৌরসভার মেয়র মো. জিয়াউল হক ও স্থানীয় সাংসদ আ.স.ম ফিরোজের কর্মী সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষে যুবলীগ নেতা তাপস দাস নিহত হয়। এ ঘটনায় নিহত তাপসের বড় ভাই পংকজ চন্দ্র দাস বাদি হয়ে পৌর মেয়রসহ ৩৫ জনের নামে বাউফল থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করে। এ মামলায় সাংসদ আ.স.ম ফিরোজের নির্দেশে ২০ নম্বর আসামী করা হয় প্রথম আলো বাউফল উপজেলা প্রতিনিধি মিজানুর রহমানকে। সাংসদ এবং তার ভাইর বিভিন্ন অনিয়মের সংবাদ প্রকাশের কারণে মিজানুর রহমানের ওপর ক্ষিপ্ত ছিলেন আ.স.ম ফিরোজ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *