দোকানির কাছে বারবার ধর্ষিত প্রতিবন্ধী; মেয়ের ভাষা বুঝেননি মা!

অনলাইন ডেস্ক; বরিশালের গৌরনদীতে লিয়াকত ফকির (৬০) নামের এক মুদি দোকানি খাবারের প্রলোভন দেখিয়ে শারীরিক ও বুদ্ধিপ্রতিবন্ধী এক কিশোরীকে (১৪) একাধিক বার ধর্ষণ করেছে। প্রথমবার ধর্ষণের পরই কিশোরী তার মাকে ইঙ্গিত দেয়, তবে বিষয়টি বুঝতে পারেনি মা। পরে একইভাবে একাধিকবার ওই কিশোরীকে ধর্ষণ করে লিয়াকত।

বুধবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে একইভাবে এক প্রতিবেশীর খালি ঘরে নিয়ে কিশোরীকে ধর্ষণের চেষ্টা করে লিয়াকত। কিশোরীর মা দেখে ফেলে চিৎকার দিলে প্রতিবেশীরা ছুটে আসলে ধর্ষক লিয়াকত পালিয়ে যায়। পরে থানায় মামলার পর ধর্ষক লিয়াকত ফকিরকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

ঘটনাটি বরিশালের গৌরনদী উপজেলার চন্দ্রহার গ্রামের। আজ বুধবার দুপুরে ধর্ষণের শিকার কিশোরীর বাবা বাদি হয়ে মুদি দোকানি লিয়াকত ফকিরকে (৬০) আসামি করে গৌরনদী থানায় ধর্ষণ মামলা করেন। মামলার পর চন্দ্রহার গ্রামে অভিযান চালিয়ে ধর্ষক লিয়াকত ফকিরকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। গ্রেপ্তার লিয়াকত ফকির উপজেলার চন্দ্রহার গ্রামের মৃত গণি ফকিরের ছেলে।

পাশাপাশি ধর্ষণের শিকার প্রতিবন্ধী কিশোরীকে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য বিকেলে বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিক্যাল কলেজ হাসাপাতালে পাঠানো হয়েছে। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন গৌরনদী মডেল থানা পুলিশের এসআই মো. তৌহিদুজ্জামান।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *