পাটুরিয়া-দৌলতদিয়ায় যানজট পরিস্থিতি তীব্রতর

মানিকগঞ্জ প্রতিনিধি: শিমুলিয়া-কাঁঠালবাড়ী নৌ-রুটে ফেরি চলাচল ব্যাহত হওয়ায় পাটুরিয়া-দৌলতদিয়া ঘাটে ফেরি পার হতে আসা যানবাহন দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে। ফলে এ রুটে ঘাট টার্মিনাল ছাড়িয়ে মহাসড়েকেও যানবানের দীর্ঘ সারি পড়েছে। মোট ১৬টি ফেরি দিয়ে বিপুল সংখ্যক যানবাহন পার করতে হিমসিম খাচ্ছে কর্তৃপক্ষ। আজ বুধবার (২ সেপ্টেম্ব) উভয় ঘাটে ৮ শতাধিক যানবাহন ফেরি পার হওয়ার অপেক্ষায় রয়েছে।

বিআইডব্লিউটিসি’র ঘাট কর্মকর্তা-কর্মচারী ও যানবাহন শ্রমিক সত্রে জানা যায়, শুধু পাটুরিয়া প্রান্তেই ৪ শতাধিক ট্রাক ও প্রায় ১শ’ যাত্রীবাহী বাস ও প্রাইভেটকার ফেরি পারের অপেক্ষায় রয়েছে। যাত্রীবাহী গাড়িগুলো অগ্রাধিকার ভিত্তিতে পার করায় ট্রাকগুলো খুব কম সংখ্যকই পার হচ্ছে। ফলে, ঘাট সংলগ্ন টার্মিনাল এখন পরিপূর্ণ।

টার্মিনালে প্রায় ৩শ’ ট্রাক গাদাগাদি করে পার্ক করতে পারে। ফলে, ঘাট সংযোগ সড়কে যানজট এড়াতে শুধু বাসের লাইন থাকে। ট্রাকগুলোকে অন্য লাইনে রাখা হয়। পাটুরিয়া ফেরি ঘাট সংযোগ সড়কের মোড় উথলী থেকে আরিচা ঘাট পর্যন্ত দীর্ঘ ৪ কিলোমিটার রাস্তা মালবাহী ট্রাকে ঠাঁসা। সড়ক ছাড়িয়ে ট্রাকগুলো আরিচা পুরাতন ফেরি টার্মিনালও পরিপূর্ণ হওয়ার পথে।

দৌলতদিয়া প্রান্তের অবস্থা প্রায় একই রকম। যাত্রীবাহী যানবাহন পারাপার করতেই দিনের অর্ধেকের বেশি সময় চলে যায়। ফলে, মালবাহী যানবাহন পারাপার হচ্ছে সীমিত হারে। অনেক যানবাহন শিমুলিয়া ও পাটুরিয়া রুট পরিহার করে বঙ্গবন্ধু যমুনা সেতু হয়ে বিকল্প পথে চলাচল করতে বাধ্য হচ্ছে। শিমুলিয়া রুটের এ অবস্থা না কাটলে এ রুটের বাড়তি যানবাহনের চাপ কমবে না বলে জানান বিআইডব্লিউটিসির দায়িত্বশীল কর্মকর্তা।

বিআইডব্লিউটিসি’র ডিজিএম জিল্লুর রহমান জানান, এ রুটে ফেরি বাড়ানো না গেলে এবং অন্য রুটের ফেরি চলাচল স্বাভাবিক না হলে পাটুরিয়া-দৌলতদিয়ার যানজট পরিস্থিতি উন্নতি হবে না।

বিআইডব্লিউটিএ’র একটু সূত্র জানায়, পদ্মার পানি যে ভাবে কমতে শুরু করেছে যে কোনো সময় এ রুটেও নাব্যতা সংকট দেখা দিতে পারে। নাব্যতা কাটাতে প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছে সংস্থাটি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *