বার্সেলোনার ব্যাপারে মনস্থির করেছেন মেসি!

স্পোর্টস ডেস্ক: শেষ পর্যন্ত বার্সেলোনা ছাড়া নাও হতে পারে মেসির। কারণ ক্লাবের সঙ্গে লিওনেল মেসির যে ‘যুদ্ধ’ চলছিল তাতে হেরে যাওয়ার দ্বারপ্রান্তে আর্জেন্টাইন সুপারস্টার। বার্সেলোনা ছাড়ার সিদ্ধান্ত থেকে মেসি সরে আসতে পারেন বলে খবর প্রকাশ করেছে আর্জেন্টাইন সংবাদমাধ্যম টিওয়াইসি স্পোর্টস।

এই সংবাদমাধ্যমটিই প্রথম ‘মেসি বার্সেলোনা ছাড়ার ঘোষণা দিতে যাচ্ছেন’ বলে জানায়। শেষ পর্যন্ত সেটাই সত্যি হয়। এবার সংবাদমাধ্যমটি জানাল, মেসি বার্সেলোনায় থেকে যাওয়ার জন্য প্রায় মনস্থির করে ফেলেছেন।

এদিকে মেসির বাবা হোর্হে মেসিও সংবাদমাধ্যমকে ছেলের থেকে যাওয়ার ব্যাপারে ইঙ্গিত দিয়েছেন। স্প্যানিশ সংবাদমাধ্যম দেপোর্তো কুয়াত্রোর প্রতিবেদনে জানা গেছে, বৃহস্পতিবার হোসেপ মারিয়া বার্তেমেউয়ের সঙ্গে বৈঠকের ব্যাপারে জিজ্ঞেস করা হলে তিনি বলেন, ‘খুব ভালো।’ এরপর তাকে প্রশ্ন করা হয়, মেসির কি বার্সেলোনায় থেকে যাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে? জবাবে হোর্হে মেসি বলেন, ‘হ্যাঁ।’

২০১৭ সালে বার্সেলোনার সঙ্গে মেসির সর্বশেষ চুক্তির অন্যতম শর্ত, ‘প্রতি মৌসুম শেষে মেসি চাইলেই ফ্রি ট্রান্সফারে ক্লাব ছাড়তে পারবেন।’ সেটার সময়সীমা ১০ই জুন। কিন্তু করোনা মহামারীর কারণে এবারের মৌসুম শেষ হয়েছে দেরিতে। তাই মেসির আইনজীবীদের দাবি, করোনার কারণে মৌসুম দীর্ঘায়িত হওয়ায় ক্লাব ছাড়ার সিদ্ধান্ত জানানোর সময়সীমাও বেড়েছে। তবে বার্সেলোনা বলছে ভিন্ন কথা। তারা ১০ই জুনকেই সময়সীমা বলে দাবি করছে। এজন্য বার্সেলোনা মেসিকে জানিয়ে দিয়েছে, ক্লাব ছাড়তে হলে রিলিজ ক্লজের ৭০ কোটি ইউরো পরিশোধ করাটা বাধ্যতামূলক।

মেসির সঙ্গে বার্সেলোনার চুক্তি রয়েছে আগামী বছরের জুন পর্যন্ত। তবে ক্লাব ছাড়ার ঘোষণা দেয়ায় নিজেকে আর বার্সেলোনার খেলোয়াড় মনে করছেন না মেসি। তাই পিসিআর টেস্ট ও অনুশীলনে যোগ দেননি তিনি। টিওয়াইসি স্পোর্টসের প্রতিবেদন অনুযায়ী, ২০২১ সালের জুন পর্যন্ত বার্সেলোনাতে থাকার বিষয়টি গুরুত্ব দিয়েই ভাবছেন আর্জেন্টাইন মহাতারকা।

Check Also

মেসি-বার্সা বিচ্ছেদ

স্পোর্টস ডেস্ক: বার্সেলোনার সঙ্গে সম্পর্ক ছিন্ন করছেন লিওনেল মেসি। আর্জেন্টাইন ফুটবল সুপার স্টার নিজেই জানিয়েছেন …

পাঁচ কারণে বার্সা ছাড়ছেন মেসি

স্পোর্টস ডেস্ক: মঙ্গলবার রাতে ফ্যাক্স বার্তায় বার্সেলোনা ছাড়ার ঘোষণা দেন লিওনেল মেসি। এরপর এ নিয়ে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *