বিএনপি আছে তবে ভিন্ন কায়দায়: ওবায়দুল কাদের

অনলাইন ডেস্ক: বিএনপি দেশের রাজনীতিতে থাকা না থাকা নিয়ে জনগণের কোনো আগ্রহ নেই বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। বিএনপি এখন জনআস্থার তীব্র সংকটে ভুগছে বলেও মনে করেন তিনি। বুধবার সকালে ব্রিফিংকালে এসব মন্তব্য করেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক।

বিএনপি নেতাদের ‘তারা আছেন, চলছে এবং রাজনীতিতে সোচ্চার’- এমন বক্তব্য প্রসঙ্গে ওবায়দুল কাদের বলেন, বিএনপি থাকুক, তবে অপরাজনীতি ত্যাগ করে দায়িত্বশীল বিরোধী দলের ভূমিকা পালন করুক, সরকারের গঠনমূলক সমালোচনা করুক।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, বিএনপি আছে, তবে ভিন্ন কায়দায়। তাই জনগণ মনে করে বিএনপি আছে বলেই ষড়যন্ত্র ও আন্দোলনের নামে আগুন সন্ত্রাসও আছে।

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার চিকিৎসার বিষয়ে বিএনপি নেতাদের বক্তব্য প্রসঙ্গে ওবায়দুল কাদের বলেন, এসব বক্তব্য বিএনপির চলমান ভাঙা রেকর্ড, যা তারা বাজিয়েই যাচ্ছে।

সরকার উদার বলেই বিএনপি নেত্রী এখন পছন্দের ডাক্তারের কাছে চিকিৎসা নিতে পারছেন। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার মানবিকতাই বেগম জিয়ার সাজা স্থগিত করে তাকে বাসায় চিকিৎসা নেয়ার সুযোগ করে দেয়া হয়েছে উল্লেখ করে ওবায়দুল কাদের বলেন, তাদের মাঝে এতটুকু কৃতজ্ঞতাবোধও নেই।

সরকারের পায়ের নিচে নাকি মাটি নেই, সরকার গণবিচ্ছিন্ন- বিএনপি মহাসচিবের এমন বক্তব্য প্রসঙ্গে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, বিচ্ছিন্নতার মাপকাঠি কী? নির্বাচনই যদি মাপকাঠি হয় তাহলে সাম্প্রতিক নির্বাচন, উপনির্বাচন ও স্থানীয় সরকার নির্বাচনসহ অন্যান্য প্রায় সব নির্বাচনে প্রমাণ হয়েছে জনগণ কার সাথে আছে। ভবিষ্যতেও প্রমাণ হবে জনগণ শেখ হাসিনা সরকারের উন্নয়ন ও অর্জনের সাথে আছে, নাকি বিএনপির সাথে আছে।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, বিএনপি জলাতঙ্ক রোগীর মতো জনগণ ও নির্বাচন আতঙ্কে ভুগছে। তাদের এমন কথায় মানুষ হাসে। দেশের অর্থনীতি শেখ হাসিনার নেতৃত্বে উন্নয়নশীল অর্থনীতির মর্যাদায় অভিষিক্ত বলেও মনে করেন তিনি।

বিএনপি এখনো হাওয়া ভবনের কালো চশমা পরে আছে বলে শেখ হাসিনার নেতৃত্বে এগিয়ে যাওয়া বাংলাদেশ দেখতে পায় না উল্লেখ করে ওবায়দুল কাদের বলেন, দেখলেও তা সহ্য হয় না বিএনপির।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *