বিজিবির সোর্সকে গুলি করে হত্যা

অনলাইন ডেস্ক: চুয়াডাঙ্গা জেলার দামুড়হুদা উপজেলায় এক ব্যক্তিকে গুলি করে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। মঙ্গলবার রাত পৌনে ৩টার দিকে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান। ঘুমন্ত অবস্থায় তাকে গুলি করা হয়। নিহতের নাম হযরত আলী (৫৫)। তিনি বাংলাদেশ বর্ডার গার্ডের (চুয়াডাঙ্গা বিজিবি-৬) সোর্স হিসেবে কাজ করতেন।

নিহত হযরত আলী দামুড়হুদা উপজেলার পারকৃষ্ণপুর-মদনা ইউনিয়নের নাস্তিপুর গ্রামের পশ্চিমপাড়ার মৃত রহিছ উদ্দিনের ছেলে।

নিহতের ছেলে তৌফিক হোসেনের দাবি, তার বাবা হযরত আলী বাংলাদেশ বর্ডার গার্ডের (চুয়াডাঙ্গা বিজিবি-৬) সোর্স হিসেবে কাজ করতেন। সীমান্ত এলাকার চোরাকারবারিরা তার বাবাকে হত্যা করেছে।

তৌফিক আরও বলেন, রাত সাড়ে ১২টার দিকে গুলির শব্দে আমার ঘুম ভেঙে যায়। এ সময় পাশের কক্ষে আমার বাবার গোঙানি শুনতে পেয়ে সেখানে গিয়ে দেখি তার মাথা থেকে রক্তক্ষরণ হচ্ছে। বাবাকে দ্রুত চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে ভর্তি করি। রাত পৌনে ৩টার দিকে তিনি মারা যান। ঘরের জানালা খোলা থাকায় সেখান দিয়ে গুলি করে দুর্বৃত্তরা।

চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালের জরুরি বিভাগের কর্তব্যরত চিকিৎসক সোহরাব হোসেন বলেন, রাত সোয়া ১টার দিকে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে আনা হয় ওই ব্যক্তিকে। তার মাথায় গুলি করা হয়েছে। রাত পৌনে ৩টার দিকে তিনি মারা যান।

দর্শনা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) লুৎফুল কবীর জানান, খবর পেয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। তবে কি কারণে তাকে হত্যা করা হয়েছে তা এখনই বলা যাচ্ছে না। অভিযুক্তদের গ্রেপ্তারে অভিযান চালানো হচ্ছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *