বিদ্যাকে হোটেলে ডেকেছিলেন পরিচালক

বিনোদন ডেস্ক : সম্প্রতি অক্ষয় কুমারের সঙ্গে ‘মিশন মঙ্গল’ ছবি করে আরো একবার সফলতা পেয়েছেন বিদ্যা বালন। ছবি মুক্তির পর একটি সাক্ষাৎকার দিয়েছেন বিদ্যা বালন। সেখানেই নানা কথা বলতে গিয়ে কাস্টিং কাউচের অভিজ্ঞতার কথা শেয়ার করেন অভিনেত্রী।

পুরনো কথা মনে করে বিদ্যা বলেন, আমার একটা দিন মনে পড়ছে চেন্নাইয়ে, এক পরিচালক আমার সঙ্গে দেখা করতে এসেছিলেন। আমি বলেছিলাম চলুন কফি শপে বসে কথা বলি, কিন্তু তিনি ক্রমাগত আমাকে বলছিলেন হোটেল রুমে যেতে। আমি উঠে আমার ঘরের দরজাটা খুলে দিয়েছিলাম, তার পরই পাঁচ মিনিটে ঘর ছেড়ে বেরিয়ে যায় সে।

বিদ্যা বলেন, একবার একজন লিখেছিল, বিদ্যা যা সব ড্রেস পরে তাতে কোনও ব্যবসা তো দূর, ঘরে বসে থাকা উচিত। এই কথাটা আমাকে অনেকদিন তাড়িয়ে বেরিয়েছিল।
আমি সেটা নিয়ে স্বপ্ন দেখতাম আর রাগ হত। এখন এই কথাগুলো আমাকে স্পর্শ করে না।

বিদ্যা জানান, তামিলে প্রায় ১২টি ছবিতে সুযোগ পেয়েছিলেন তিনি। কিন্তু সবই হয়েছিল মৌখিকভাবে পাওয়া কাজ। কোনও লিখিত চুক্তি ছিল না বলে অন্য নায়িকাকে নিয়ে বিদ্যাকে সরিয়ে দেওয়া হয়। তিনি বলেন, আমার বাবা-মা চেন্নাই এসে প্রযোজকের সঙ্গে দেখা করেছিলেন। ওই প্রযোজক কয়েকটি ক্লিপ দেখিয়ে বলেছিল, ওকে কি কোনও দিক থেকে নায়িকা মনে হয়? মায়ের কাছ থেকে ঘটনার কথা শুনে প্রায় ৬ মাস আয়নায় মুখ দেখতে পারেননি বিদ্যা। নিজেকে অত্যন্ত কুৎসিত মনে হয়েছিল তার।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *