বিয়ে বাড়িতে যাওয়ার পথে নৌকা ডুবি, নিহত ৯

সুনামগঞ্জ থেকে সংবাদদাতা : সুনামগঞ্জের দিরাই উপজেলার রফিনগর ইউনিয়নের কালিকুটা হাওড়ে নৌকা ডুবিতে এখন পর্যন্ত ৯ জনের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে।

জানা যায়, মঙ্গলবার সন্ধ্যায় রফিনগরের ইউনিয়নের মাছিমপুর থেকে নৌকায় করে চরনারচর ইউনিয়নের পেরুয়া গ্রামে একটি বিয়ে বাড়ির অনুষ্ঠানে যোগ দিতে যাচ্ছিলেন তারা। এ সময় কালিকুটা হাওড়ে ঝড়ের কবলে পড়ে ডুবে যায় নৌকাটি। এদের মধ্যে ২২ জন যাত্রী সাঁতরে পাড়ে ওঠে।

নিহতরা হলেন, রফিনগর ইউনিয়নের মাছিমপুর গ্রামের আরজ আলীর স্ত্রী রইতনু নেছা (৩৫), একই গ্রামের জাসদ মিয়ার মেয়ে শান্তা বেগম (৪), চরনাচর ইউনিয়নের পেরুয়া গ্রামের করিমা বেগম (৬২) ও নোয়ার চর গ্রামের আসাদ মিয়া (৬)। মাছিমপুর গ্রামের বাবুল মিয়ার ছেলে শামীম (৩), একই গ্রামের বদরুল মিয়ার ছেলে আবিদ (৪), নোয়ারচর গ্রামের আফাজালে ছেলে সোহান (২) ও চরনারচর ইউনিয়নের পেরুয়া গ্রামের ফিরোজ আলীর ছেলে আজম (২)।

স্থানীয়রা জানান, বুধবার পেরুয়া গ্রামে ফিরোজ আলীর ছেলের বিয়ের অনুষ্ঠান ছিল। এই অনুষ্ঠানে যোগ দিতে এক দিন আগে গতকাল রওয়ানা হয় মাছিমপুরে থাকা ফিরোজ আলী স্বজনরা। যাওয়ার পথে কালিকুটা হাওড়ে তাদের বহনকারী নৌকাটি ডুবে যায়।

দিরাই উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বিশ্বজিৎ দেব বলেন, সিলেট ও সুনামগঞ্জের ডুবুরি দলের সদস্যরা এলাকাবাসীর সহযোগিতায় হাওড়ে নিখোঁজদের উদ্ধারে তৎপরতা চালাচ্ছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *