বড় হারে শুরু হলো অধিনায়ক তামিমের

স্পোর্টস ডেস্ক : শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে প্রথম ম্যাচে অধিনায়ক তামিমের যাত্রাটা সুখকর হলো না। কলম্বোর প্রেমাদাসা স্টেডিয়ামে লঙ্কানদের দেয়া ৩১৫ রানের পাহাড় টপকাতে নেমে ২২৩ রানে গুটিয়ে যায় টাইগাররা।

৯১ রানের বড় হার দিয়ে শ্রীলঙ্কা সিরিজ শুরু হলো তামিমদের। নিজের বিদায়ী ম্যাচে দুর্দান্ত বোলিং করে দলকে জয় এনে দিয়েছেন মালিঙ্গা।

আজ তিন ম্যাচ সিরিজের প্রথম ওয়ানডেতে জিতে সিরিজে এগিয়ে গেল শ্রীলঙ্কা।

বাংলাদেশের সামনে লক্ষ্য ছিল ৩০০ বলে ৩১৫ রান। কিন্তু খেলতে নেমে শূন্য রানেই মালিঙ্গার বলে বোল্ড হয়ে সাজঘরে ফেরেন অধিনায়ক হিসেবে খেলতে নামা তামিম ইকবাল।

ঘুরে দাঁড়ানোর চেষ্টা করছিলেন সৌম্য-মিথুন। কিন্ত পারলেন না। পরপর দুইজন আউট হলে বিপদে পড়ে বাংলাদেশ। ক্রিজে এসে ফিরে যান মাহমুদুল্লাহও। মাত্র পাঁচ ওভারে ১২ রান দিয়ে দুই উইকেট নিয়েছেন মালিঙ্গা। সৌম্য (১৫) ও মিথুন (১০) দুই অঙ্কের ঘরের দেখা পেলেও মাহমুদুল্লাহ আউট হয়েছেন মাত্র তিন রান করে।

সাব্বির-মুশফিকের জুটি স্বপ্ন দেখিয়েছিল। কিন্তু বেশিদূর দলকে নিয়ে যেতে পারেননি দুজন। ভুল শটে আউট হয়ে সাব্বির সাজঘরে ফিরলে ভাঙে ১১১ রানের জুটি। মুশফিকও একা বেশিদূর যেতে পারেননি। তার ইনিংস থামে ৬৭ রানে।

লঙ্কানদের হয়ে সর্বোচ্চ তিনটি করে উইকেট নিয়েছেন মালিঙ্গা ও প্রদীপ। দুটি উইকেট নেন সিলভা।

প্রেমাদাসার ব্যাটিং সহায়ক পিচে টস জিতে ব্যাটিং নিতে ভুল করেননি লঙ্কান অধিনায়ক দিমুথ করুনারত্নে। ব্যাট করতে নেমে শুরুতেই ওপেনার ফার্নান্দোকে হারালেও অধিনায়ককে সঙ্গে নিয়ে বিধ্বংসী ক্রিকেট খেলেন কুশল পেরেরা।

করুনারত্নে ৩৬ রান করে আউট হলে ভাঙে ৯৭ রানের জুটি। তবে কুশল পেরেরা মাঠ ছাড়েন তিন অঙ্কের ম্যাজিক ফিগার ছুঁয়েই। এ ছাড়া কুশল মেন্ডিস ৪৩, অ্যাঞ্জেলা ম্যাথুস খেলেন ৪৮ রানের ইনিংস।

বোলিংয়ে শুরুতেই শফিউল ইসলাম শুরুতে ঝলক দেখালেও শেষ পর্যন্ত সেই ধার ছিল না। তবে সর্বোচ্চ উইকেট নিয়েছেন তিনিই। ৯ ওভারে ৬২ রান দিয়ে দিয়ে তিন উইকেট নেন শফিউল। রুবেল-মিরাজরা শুরু থেকেই নির্বিষ বোলিং করেছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *