মশা নিধনে ওষুধ আনতে গড়িমসি, ব্যাখা দিতে হাইকোর্টে এলজিআরডি সচিব

নিজস্ব প্রতিবেদক : এডিস মশা নির্মূলে নতুন ওষুধ বিদেশ থেকে আনার বিষয়ে কার্যকর সিদ্ধান্ত না নেয়ায় স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের সচিবকে তলব করেছেন হাইকোর্ট। আজ দুপুরে বিচারপতি তারিক উল হাকিম ও বিচারপতি মো. সোহরাওয়ার্দীর নেতৃত্বাধীন হাইকোর্ট বেঞ্চ এ আদেশ দেন। এর প্রেক্ষিতে এলজিআরডি মন্ত্রণালয়ের সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ হাইকোর্টে হাজির হয়েছেন। আজ বৃহস্পতিবার দুপুর ২টার দিকে তিনি সেখানে পৌঁছান। এ সময় তার সঙ্গে মন্ত্রণালয়ের অন্যান্য কর্মকর্তারাও ছিলেন।

দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের পক্ষে আদালতে শুনানি করেন আইনজীবী সাঈদ আহমেদ রাজা এবং উত্তর সিটি করপোরেশনের পক্ষে ছিলেন আইনজীবী তৌফিক ইনাম টিপু। আর রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল কাজী মাঈনুল হাসান ও সহকারী অ্যাটর্নি জেনারেল সায়রা ফাইরোজ। শুনানিতে বিশেষ বিমানে করে মশা নিধনের নতুন ওষুধের নমুনা আজকের মধ্যে দেশে আসবে বলে ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের আইনজীবীরা আদালতকে জানান। একই সঙ্গে ওই নমুনা ওষুধের কার্যকারিতার বিষয়ে মহাখালীর একটি ল্যাবরেটরিতে প্রাথমিকভাবে পরীক্ষা চালানো হবে বলেও তারা আদালতকে অবহিত করেন। শুনানির একপর্যায়ে ডেঙ্গু মশা নিধনে বিদেশ থেকে কার্যকরী ওষুধ আনতে গড়িমসি করার বিষয়ে ব্যাখ্যা দিতে স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের সচিবকে তলব করেন হাইকোর্ট।

দুপুর আড়াইটায় শুনানি শুরু হলে এলজিআরডি মন্ত্রণালয়ের সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ ওষুধ আনার ব্যাপারে তার ব্যাখ্যা দেবেন। কত কম সময়ে বিদেশ থেকে ওষুধ আমদানি করা যায় এবং সেগুলো পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে দুই সিটি করপোরেশনের হাতে তুলে দেওয়া যায়-তারই ব্যাখ্যা দেবেন সচিব।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *