মুজিববর্ষে খালেদা জিয়ার মুক্তি চেয়ে রাষ্ট্রপতি-প্রধানমন্ত্রীর কাছে আবেদন

অনলাইন ডেস্ক : বঙ্গবন্ধুর জন্মশত বার্ষিকী উপলক্ষ্য কারাবন্দি বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মুক্তির আরজি জানিয়ে রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে আবেদন করেছেন সুপ্রিম কোর্টের একজন আইনজীবী। তার নাম ইউনুছ আলী আকন্দ।

মঙ্গলবার ডাকযোগে এ আবেদন করেন ওই আইনজীবী। আবেদনের একটি অনুলিপি আইন সচিব ও স্বরাষ্ট্রসচিবের কাছেও পাঠানো হয়েছে।

ইউনুছ আলী আকন্দ জানান, সংবিধানের ৪৮ (৩) ও ৪৯ অনুচ্ছেদ অনুযায়ী যেকোনো স্পর্শকাতর জনগুরুত্বপূর্ণ বিষয়ে সংক্ষুব্ধ ব্যক্তি কারও জন্য ক্ষমা চেয়ে রাষ্ট্রপতির কাছে আবেদন করতে পারেন এবং রাষ্ট্রপতি তার সিদ্ধান্ত নিতে পারেন।

তিনি বলেন, আমি বিএনপির রাজনীতি করি না। সক্রিয় কোনো রাজনীতিতে জড়িত না থাকলেও জাতীয় পার্টির হয়ে নির্বাচনে অংশ নিয়েছিলাম। অতীতে আওয়ামী লীগের হয়েও নির্বাচনে অংশ নিতে চেয়েছিলাম। কিন্তু মনোনয়ন পাইনি।

ইউনুছ আলী আকন্দ বলেন, বেগম খালেদা জিয়া বয়স্ক ও গুরুতর অসুস্থ। মুক্তি পাওয়া তার সাংবিধানিক অধিকার। বিএনপি ও তার পরিবার এবং আইনজীবীরা এ বিষয়ে কোনো পদক্ষেপ নিতে ব্যর্থ হয়েছে। আমি মানবিক কারণে এ আবেদন করেছি। রাষ্ট্রপতির ক্ষমায় খালেদা জিয়া মুক্তি পেতে পারেন। বিশ্বের অনেক দেশে বিশেষ দিনে কারাবন্দীদের মুক্তি দেওয়ার রেওয়াজ রয়েছে। মুজিববর্ষ উপলক্ষ্যে খালেদা জিয়ার দণ্ড মওকুফ করে তাকে মুক্তি দিলে সরকারের ভাবমূর্তি আরো উজ্জ্বল হবে।

উল্লেখ্য, ২০১৮ সালের জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ঢাকা- ৮ নির্বাচনী আসনে জাতীয় পার্টির (এরশাদ) লাঙ্গল প্রতীক নিয়ে নির্বাচন করে হেরে যান অ্যাডভোকেট ইউনুছ আলী আকন্দ। সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির নির্বাচনে (২০২০- ২০২১) সরকার সমর্থক সাদা প্যানেল ও বিএনপি সমর্থক নীল প্যানেলের পাশাপাশি ‘স্বতন্ত্র’ হিসেবে সভাপতি পদে নির্বাচন করছেন তিনি।

Check Also

খালেদা জিয়া ‘ফিরোজায়’

স্টাফ রিপোর্টার: কারামুক্ত খালেদা জিয়া তার গুলশানের বাসা ‘ফিরোজায়’ পৌঁছেছেন। ২৫ মাসেরও বেশি সময় পর …

মানহানির এক মামলায় স্থায়ী জামিন খালেদা জিয়ার

অনলাইন ডেস্ক : মানহানির এক মামলায় হাইকোর্ট থেকে স্থায়ী জামিন পেলেন বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *