মেডিকেল রিপোর্ট ছাড়াও ধর্ষণের সাজা দেয়া যাবে: হাইকোর্ট

অনলাইন ডেস্ক: মেডিকেল রিপোর্ট ছাড়াও ধর্ষণের সাজা দেয়া যাবে। ধর্ষণ মামলা প্রমাণে মেডিকেল রিপোর্ট মুখ্য বিষয় নয়। পারিপার্শিক অবস্থা ও সাক্ষ্য বিবেচনায় নিয়ে ধর্ষণের শাস্তি দেয়া যাবে। একইসঙ্গে কোনো ভুক্তভোগী দেরিতে মামলা করলে সেটি মিথ্যা বলা যাবে না।

বুধবার (১৪ অক্টোবর) বিচারপতি রেজাউল হকের নেতৃত্বাধীন হাইকোর্ট বেঞ্চ এ রায় দিয়েছেন।

ধর্ষণের সর্বোচ্চ সাজা মৃত্যুদণ্ডের বিধান করে মঙ্গলবার অধ্যাদেশ জারি হয়। ২০০৮ সালের আইনের ৭ ধারা, ৯ ধার (উপধারা ১, ৪, ৫), ১৯, ২০ ধারাসহ কয়েকটি ধারায় সংশোধন আনা হয়েছে।

২০০০ সালের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইন অনুযায়ী, আইনের ৯/১ ধারায় ধর্ষণের জন্য সাজা ছিল যাবজ্জীবন কারাদণ্ড। এখন থেকে ধর্ষণের শাস্তি হবে হয় ফাঁসি না হলে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড।

ধর্ষণের মামলার সংজ্ঞায় বলা আছে, মেডিকেল রিপোর্ট ছাড়া কোনোভাবেই সাজা দেয়া যাবে না আসামিকে। ধর্ষণ মামলা প্রমাণ করতে তাই অন্যতম অস্ত্র মেডিকেল রিপোর্ট।

কিন্তু বুধবার হাইকোর্ট এক রায়ে জানিয়ে দিয়েছে, এখন থেকে মেডিকেল রিপোর্ট ছাড়াও পারিপার্শ্বিক অবস্থা বিবেচনায় ধর্ষণের সাজা দেয়া যাবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *