রাজাপুরের ২নং শুক্তাগড় ইউনিয়নে মনোনয়ন প্রত্যাশী শাহীন

গাজী মো. গিয়াস উদ্দিন বশির, ঝালকাঠি থেকে: ঝালকাঠির রাজাপুরের ২নং শুক্তাগড় ইউনিয়নে ২০২১ সালের ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে দলীয় মনোনয়ন পেতে ব্যস্ত সম্ভাব্য প্রার্থীরা। এ ইউনিয়নের বর্তমান চেয়ারম্যান মজিবুল হক মৃধা বার্ধক্যের কারণে তার জ্যেষ্ঠ পুত্র উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি আলহাজ মো. শাহীন মৃধাকে আগামী নির্বাচনে চেয়ারম্যান প্রার্থী হওয়ার জন্য তিনি ব্যক্তিগত মতামত ব্যক্ত করেছেন।
ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচন দলীয় প্রতীকে অনুষ্ঠিত হওয়ায় উপজেলা আওয়ামী লীগের দলীয় চেয়ারম্যান প্রার্থীরা মনোনয়ন পেতে জনগণের সেবায় ব্যস্ত সময় পার করছেন।
রাজাপুরে এবার তরুণ প্রার্থীদের মধ্যে শাহীন মৃধার লবিং ও নেতাদের সাথে সু-সম্পর্ক আগে থেকেই দেখা গেছে। সম্ভাব্য প্রার্থী হিসাবে নিজ ইউনিয়নে তার বাবা চেয়ারম্যান থাকার পরেও তিনি জনগণের সেবায় আগে থেকেই নিয়োজিত আছেন। এছাড়াও শাহীন মৃধা শুক্তাগড় ইউনিয়নের আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মীদের নিয়ে মাঠে সক্রিয় ভ‚মিকা পালন করছেন।
এ ব্যাপারে রাজাপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি আলহাজ মো. শাহীন মৃধা বলেন, বিএনপি জামায়াতের দূর্গ হিসেবে পরিচিত ২নং শুক্তাগড় ইউনিয়ন। এখানে নৌকার মাঝি হয়ে মাঠপর্যায়ের নেতা-কর্মীদের নিয়ে জয় বাংলা ও নৌকার শ্লোগান দিয়েছি। আমরা ২০০৯ সনের নবম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নৌকা প্রতীকের পক্ষে সক্রিয় অবস্থান নেই এবং বজলুল হক হারুন সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন।
২০০৯ সালে উপজেলা নির্বাচনে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ সমর্থিত প্রার্থীর পক্ষে সক্রিয় অবস্থান নেই এবং মিলন মাহমুদ বাচ্চু উপজেলা চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন। ২০১৪ সালে দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আমরা নৌকা প্রতীকের পক্ষে সক্রিয় অবস্থান নেই এবং বজলুল হক হারুন সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন।
একই বছর উপজেলা নির্বাচনে আমরা আওয়ামী লীগ সমর্থিত প্রার্থীর পক্ষে সক্রিয় অবস্থান নেই এবং অধ্যক্ষ মনিরুজ্জামান মনির উপজেলা চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন।
২০১৮ সালে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আমরা নৌকা প্রতীকের পক্ষে কাজ করি এবং বজলুল হক হারুন সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন।
২০১৯ সনে উপজেলা নির্বাচনে আমরা বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ সমর্থিত প্রার্থীর পক্ষে সক্রিয় অবস্থান নেই এবং অধ্যক্ষ মনিরুজ্জামান মনির দ্বিতীয়বারের মতো উপজেলা চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন।
২০১১ সনে আমাকে বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ রাজাপুর উপজেলা শাখার আহবায়ক কমিটির সদস্য করা হয়।
২০১৩ সনে আমাকে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ রাজাপুর উপজেলা শাখার সহ-সভাপতি নির্বাচিত করা হয়।
২০২০ সনে পুনঃরায় আমাকে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ রাজাপুর উপজেলা শাখার সহ- সভাপতি নির্বাচিত করা হয়।
কাহীন মৃধা বলেন, আমার পিতা আলহাজ মজিবুল হক মৃধা বাংলাদেশ স্বাধীন হওয়ার পরে ১৯৭৩ সনে প্রথম ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে ইউপি সদস্য নির্বাচিত হন। ১৯৭৩ সন থেকে ২০১১ ইং সাল পর্যন্ত এক নাগারে ৩৮ বছর ইউপি সদস্য ছিলেন আমার পিতা।
২০১১ সালে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ সমর্থিত আনারস প্রতীক নিয়ে আমার পিতা আলহাজ মজিবুল হক মৃধা ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান প্রার্থী হিসাবে প্রতিদ্বন্ধিতা করেন। কিন্তু কেওতার বড়বাড়ী ভোটকেন্দ্রে দাঙ্গা-হাঙ্গামা ও কৌশলগত কারণে আমরা সামান্য ভোটের ব্যবধানে পরাজিত হই।
২০১৩ ইং সালে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ রাজাপুর উপজেলা শাখা ২ নং শুক্তাগড় ইউনিয়নের সভাপতি হিসাবে আলহাজ মজিবুল হক মৃধাকে নির্বাচিত করেন।
২০১৬ সনে আলহাজ মজিবুল হক মৃধা বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ সমর্থিত নৌকা প্রতীক নিয়ে বিপুল ভোটে ইউপি চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন এবং বর্তমানে চেয়ারম্যান হিসাবে দায়িত্বরত আছেন।
২০২০ সনে উপজেলা আহŸায়ক কমিটি আলহাজ মজিবুল হক মৃধাকে পুনরায় ২নং শুক্তাগড় ইউনিয়নের সভাপতি নির্বাচিত করে। আমার পিতা আলহাজ মজিবুল হক মৃধা নিষ্ঠা ও সততার সাথে দীর্ঘ ৪৭ বছর একটানা জনগণের সেবায় নিয়োজিত আছেন।
আমি বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ রাজাপুর উপজেলা শাখার সহ-সভাপতি হিসাবে দলীয় কর্মকান্ড ও দলকে আরো প্রতিষ্ঠিত করার জন্য নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছি, দরিদ্র অসহায় মানুষের সেবা করে যাচ্ছি এবং সাংগর হালিমা খাতুন এতিমখানা ও হাফিজি মাদ্রাসার প্রতিষ্ঠাতা হিসাবে দায়িত্বরত আছি।
বিশেষ করে আমরা জেলা ও উপজেলা আওয়ামী লীগ এবং জননেতা আলহাজ্ব বজলুল হক হারুন এমপি মহোদয় ও বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের অন্যতম সদস্য, ১৪ দলের সমন্বয়ক ও মুখপাত্র জননেতা আলহাজ আমির হোসেন আমু এমপি মহোদয়ের র্নিদেশে তৃণমূল দলকে শক্তিশালী করার লক্ষ্যে মাঠ পর্যায় নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছি।
গুক্তাগড় একটি ব্যাতিক্রমর্ধমী ইউনিয়ন। এখানে বিএনপির সাবেক আইন প্রতিমন্ত্রী শাহজাহান ওমরের জন্মস্থান এবং উপজেলা বিএনপির সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক উভয়ের বাড়ি শুক্তাগড় ইউনিয়নে। বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ সু-চিন্তিত মতামতের ভিত্তিতে প্রার্থী নির্বাচিত করবে- এটা আমার বিশ^াস। আমার পিতা আলহাজ মজিবুল হক মৃধা বার্ধক্যের কারণে তার মনের ইচ্ছা, শুক্তাগড় ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠন এবং আপামর জনসাধারণের অভিমত ভবিষ্যৎ শুক্তাগড় ইউনিয়নের দলীয় কর্মকান্ডকে আরও সচ্ছল এবং বেগবান করার জন্য শাহীন মৃধাকে আগামী ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান প্রার্থী হিসাবে দেখতে চান।
আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে দলীয় নীতিনির্ধারকদের কাছে প্রার্থনা, আমি ২নং শুক্তাগড় ইউনিয়নের চেয়ারম্যান প্রার্থী হিসাবে মনোনয়ন প্রত্যাশী এবং সকলের দোয়া ও সহযোগীতা কামনা করছি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *