শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে চলছে ধোয়া মোছার কাজ

অনলাইন ডেস্ক: করোনা মহামারির কারণে প্রায় ১৮ মাস শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ রয়েছে। আগামী ১২ সেপ্টেম্বর স্কুল-কলেজ খোলার ঘোষণা দেয়া হয়েছে। তাই শিক্ষার্থীদের ক্লাসে ফেরাতে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলোতে চলছে জোর প্রস্তুতি।

সরেজমিন রাজধানীর বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ঘুরে দেখা গেছে, প্রতিষ্ঠানগুলোতে চলছে ধোয়া-মোছার কাজ। বেঞ্চগুলো এরই মধ্যে পরিষ্কার করা হয়েছে। দূরত্ব বজায় রাখতে প্রয়োজনীয় বেঞ্চ সংযোজন করা হচ্ছে। প্রবেশ গেটে ‘নো মাস্ক, নো স্কুল’সহ বিভিন্ন সচেতনতা ও নির্দেশনামূলক লেখা টানানো হয়েছে।

এছাড়া শিক্ষার্থীদের জটলা-ভিড় এড়াতে নির্দিষ্ট দূরত্বে বৃত্ত অঙ্কন করে দেয়া হয়েছে। পরিপাটি স্কুল-কলেজের আঙিনা যেন শিক্ষার্থীদের অপেক্ষার প্রহর গুনছে। একই সাথে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলোতে বাচ্চাদের জ্বর মাপার জন্য থার্মোমিটার, হ্যান্ড স্যানিটাইজারসহ প্রয়োজনীয় উপকরণও রাখা হচ্ছে। তবে প্রস্তুতির কাজে শহরের চেয়ে গ্রামের প্রতিষ্ঠানগুলো কিছুটা পিছিয়ে আছে।

দেশে করোনা শনাক্ত হয় ২০২০ সালের ৮ মার্চ। প্রাণঘাতী ভাইরাসটির বিস্তার রোধে ১৭ মার্চ থেকে দেশের সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষণা করে সরকার। এরপর দফায় দফায় বাড়ানো হয় ছুটির মেয়াদ। এই দেড় বছরের বেশি সময় ধরে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলো বন্ধ থাকায় শ্রেণিকক্ষগুলো পাঠদানের অনুপযোগী হয়ে পড়ে। ধুলাবালি আর মাকড়শার জালে ছেয়ে গেছে শ্রেণিকক্ষ। কোনো কোনো ক্ষেত্রে আসবাবপত্র অযত্ন-অবহেলায় অকেজো হয়ে পড়েছে। বাইরেও চিত্রটা এমন। শ্যাওলা জমে বারান্দাগুলো হয়েছে হাঁটার অনুপযোগী। মাঠে বর্ষার পানি পেয়ে লম্বা হয়েছে ঘাস, জমেছে আগাছা। তাই স্কুল খুলে দেয়ার ঘোষণায় বিদ্যালয়গুলোকে পাঠদান উপযোগী করার কাজ চলছে পুরোদমে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *