শিরোপা হাতছাড়া হলো লাহোরের

স্পোর্টস ডেস্ক: প্লে অফ পর্বের দুই ম্যাচে ভালো শুরু করেও ইনিংস লম্বা করতে ব্যর্থ হন বাংলাদেশের ক্রিকেটার তামিম ইকবাল। তবে দল জয় পাওয়ায় ফাইনালে সুযোগ আসে তামিমেরও। কিন্তু আরো একবার ‘মাঠে মারা’ যেতে দেখা গেলো তামিমের প্রতিশ্রুতিশীল ইনিংস। আর হাতছাড়া হলো শিরোপা। পাকিস্তান সুপার লীগের ফাইনালে মঙ্গলবার করাচি কিংসের কাছে ৫ উইকেটে হার দেখে তামিমের দল লাহোর কালান্দারস। আগে ব্যাট করে লাহোরের সংগ্রহ ছিল ১৩৪/৭। জবাবে ৮ বল হাতে রেখে জয় শিরোপা নিশ্চিত করে করাচি।

করাচিতে ইনিংসের শুরুটা খারাপ ছিল না লাহোর কালান্দারসের।
১০ ওভারে বিনা উইকেটে লাহোরের সংগ্রহ পৌঁছে ৬৮ রানে। তবে এগারোতম ওভারের প্রথম বলে উইকেট খোয়ান তামিম। পরে খেই হারায় তার দল। করাচির পেসার উমাইদ আসিফের বলে ক্যাচ দেন বাংলাদেশ ওয়ানডে দলের অধিনায়ক। উইকেট খোয়ানোর আগে বাংলাদেশের শীর্ষ ওপেনার ৩৮ বলের ইনিংসে হাঁকান চারটি চার ও একটি ছক্কা। লাহোরের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ২৭ রান আসে অপর ওপেনার ফখর জামানের ব্যাট থেকে। তবে দিন শেষে সব আলো টানেন করাচি অধিনায়ক বাবর আজম। ৪৯ বলের ইনিংসে ৬৩ রানে অপরাজিত থাকেন করাচি ওপেনার। ম্যান অব দ্য ফাইনাল ও টুর্নামেন্ট সেরা খেলায়াড়ের পুরস্কার ওঠে পাকিস্তান জাতীয় দলের অধিনায়কের হাতেই। আসরে ব্যাট হাতে সর্বোচ্চ ৪৭৩ রান সংগ্রহ তার।

এবারের পিএসএলের শুরুতে বাংলাদেশের কোনো ক্রিকেটার সুযোগ পাননি। করোনা মহামারিতে বন্ধ হওয়া টুর্নামেন্ট আবার শুরু হওয়ার আগে প্লে অফ পর্বের জন্য অজি ব্যাটসম্যান ক্রিস লিনের জায়গায় তামিম ইকবারকে দলভুক্ত করে লাহোর কালান্দারস। প্লে পর্বের অপর দল মুলতান সুলতানস নিয়েছিল বাংলাদেশ টি-টোয়েন্টি দলের অধিনায়ক মাহমুদুল্লাহ রিয়াদকে। তবে করোনা আক্রান্ত হওয়ায় পাকিস্তানে যেতে পারেননি রিয়াদ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *