সাপাহারে ভাষা শহীদদের স্মরণে ২ বিদ্যালয়ে শহীদ মিনার

গোলাপ খন্দকার, সাপাহার (নওগাঁ) থেকে: নওগাঁর সাপাহার উপজেলার ৯৬টি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের মধ্যে ৯৪টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ভাষা শহীদদের স্মরণে নেই শহীদ মিনার ।

সরকারিভাবে প্রত্যেক শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে একুশে ফেব্রæয়ারি আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালন করার নির্দেশনা রয়েছে। তবে ৬৮ বছর হলো এই ভাষাকে ছিনিয়ে আনার। কিন্ত আজও সব সরকারি প্রাথমিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ভাষা শহীদদের স্মরণে নেই শহীদ মিনার। কোমলমতী শিক্ষার্থীরা এখন থেকে এটাকে স্মরণ না করলে হয়তো ভুলেই যাবে আন্দোলনের মাধ্যমে এই রাষ্ট্র ভাষা বাংলাকে আমরা ছিনিয়ে এনেছি। রাস্তায় অনেক রক্ত ঝরাতে হয়েছে দামাল ছেলেদের। কিন্তু কোমলমতী শিশু শিক্ষার্থীদের জানাতে হবে এই ইতিহাসকে তাই প্রতিটি বিদ্যালয়ে ১টি করে শহীদ মিনার স্থাপন করার দাবী প্রবীণ ব্যক্তিদের।

কিন্তু বিভিন্ন প্রাথমিক বিদ্যালয়ে প্রতি বছর নিজস্ব উদ্যোগে অস্থায়ী শহীদ মিনার তৈরি করা হয়। এছাড়া অস্থায়ী শহীদ মিনার তৈরি করে বা শিক্ষার্থীদের সাথে নিয়ে মাইল মাইল পথ প্রভাত ফেরির জন্য খালি পায়ে হেঁটে নিয়ে যাওয়া হয় ভাষা শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদনের জন্য মাইল মাইল দূরে।
বৈদ্যপুর প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক ছাদেক উদ্দীনের সাথে কথা হলে আমাদের বিদ্যালয়ে কোনো শহীদ মিনার নেই আমাদের ফুল দেওয়ার জন্য। ফুল দিতে ৮ কিলোমিটার দূরত্বে সাপাহারে যেতে হয়। এই জন্য অনেক কষ্ট হয়। তাই প্রতিটি বিদ্যালয়ে স্থায়ীভাবে শহীদ মিনার তৈরি করার জন্য প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করছি।

উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার শহিদুল আলমের সাথে কথা হলে তিনি জানান, আমরা বিদ্যালয়ে চিঠি দিয়েছি দিবসটি উদযাপন করার জন্য এবং উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের কাছে আবেদন করব যাতে করে উপজেলার সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে শহীদ মিনার স্থাপন করা হয়।

Check Also

দেশে করোনায় আরো একজনের মৃত্যু, নতুন আক্রান্ত ৩

অনলাইন ডেস্ক : করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে দেশে আরো একজনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে কোভিড-১৯ …

করোনার মতো বিপর্যয় পৃথিবীতে আর আসেনি: জাতিসংঘ মহাসচিব

অনলাইন ডেস্ক : জাতিসংঘ প্রতিষ্ঠার পর সম্মিলিতভাবে আমাদের সবচেয়ে বড় পরীক্ষার মুখোমুখি করেছে প্রাণঘাতি করোনা …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *