সিগারেটে আশঙ্কাজনক হারে বাড়ছে ভারী ধাতুর পরিমাণ

অনলাইন ডেস্কঃ দেশে উৎপাদিত সিগারেটের মধ্যে ভারী ধাতুর (হেভি মেটাল) অস্তিত্ব পাওয়া গেছে, যা মানুষের জন্য মারাত্মক ক্ষতিকর। গোল্ডলিফ, বেনসন, স্টার, নেভি, হলিউড ও ডার্বি সিগারেটের তামাক পরীক্ষা করে এমনটি জানিয়েছে বাংলাদেশ নিরাপদ খাদ্য কর্তৃপক্ষ (বিএফএসএ)।

বিএফএসএ এর প্রতিবেদনে আরো বলা হয়, সিগারেটের মধ্যে ভারী ধাতু হিসেবে পাওয়া যাচ্ছে লেড, ক্যাডমিয়াম ও ক্রোমিয়ামের মতো বিষাক্ত ধাতু, যা ধূমপায়ী ব্যক্তিদের জন্য যেমন ক্ষতিকর, তেমনি ধূমপায়ীদের আশে পাশে থাকা লোকজনের জন্যও ক্ষতিকর। সিগারেটে ভারী ধাতুর উপস্থিতি ক্যান্সার সহ নানাধরণের জটিল রোগ সৃষ্টিতে ভূমিকা রাখে।

বিএফএসএ এর এই প্রতিবেদনটি চিঠি আকারে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর এবং স্বাস্থ্য ও পরিবারকল্যাণ মন্ত্রনালয়ে পাঠানো হয়েছে। সেখানে আরো বলা হয়েছে, সিগারেটে হেভি মেটালের উপস্থিতির কোন সুযোগ নেই। এই ভারী ধাতুর উপস্থিতি প্রত্যক্ষ এবং পরোক্ষ ধূমপায়ী উভয়ের জন্য মারাত্মক ক্ষতিকর। সেই সঙ্গে বিএফএসএ সিগারেটে হেভি মেটাল কিভাবে প্রবেশ করছে, তা খতিয়ে দেখতে সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়কে অনুরোধ করে। জনসাধারণকে এই উচ্চ মাত্রায় হেভি মেটাল থাকার ব্যাপারে সতর্ক করতে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতেও আর্জি জানায় বিএফএসএ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *