সে ইনসাফের উপর প্রতিষ্ঠিত থাকে

আবদুল হালিম খান : হজরত আলী (র.) বলেন, আমি হজরত রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামকে বলতে শুনেছি যে, সাবধান অচিরেই ফিতনা ফ্যাসাদ দেখা দেবে।

আমি বললাম এ থেকে বাঁচার উপায় কী ইয়া রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম!

তিনি বললেন, আল্লাহর কিতাব, এতে আছে তোমাদের পূর্ববর্তীদের সংবাদ আর তোমাদের জন্য ফয়সালার মহান এক বিধান। এটা হলো সত্য-মিথ্যার পার্থক্যকারী। এটা নিরর্থক নয়। যে ব্যক্তি অহংকার করে তা ছেড়ে দেবে মহান আল্লাহপাক তার ঘাড় ভেঙে দেবেন। এটাকে বাদ দিয়ে যে ব্যক্তি হিদায়াত চায় তাকে আল্ল-াহতায়ালা গোমরা করে দেবেন। এটা হলো আল্লাহতায়ালার হিকমতপূর্ণ উপদেশ, সরল-সঠিক পথ। এর অনুকরণে মানুষের চিন্তাধারা বক্র হয় না, এতে মুখ জড়তার শিকার হয় না। আলেমগণ এর থেকে কখনও পরিতৃপ্ত হয় না, বারবার পাঠেও কখনও তা পুরোনো হয় না। এর বিস্ময়ের শেষ নেই। এটা এমন এক কিতাব যা শোনার পর জিনরা একথা না বলে থাকতে পারেনি যে, আমরা তো এক বিস্ময়কর কুরআন শ্রবণ করেছি যা সঠিক পথ নির্দেশ করে। সুতরাং আমরা এতে বিশ্বাস স্থাপন করেছি। (সুরা জিন)

সত্য বলে যে এর অনুসরণে কাজ করে সে প্রতিফলপ্রাপ্ত হয়, যে এর অনুসরণে সিদ্ধান্ত নেয় সে ইনসাফের উপর প্রতিষ্ঠিত থাকে, আর যে ব্যক্তি এর দিকে আহ্বান করে সে সীরাতে মুস্তাকিমের হিদায়াত পায়। (জামে তিরমিযি)

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *