হাসতে হাসতে পাথরের আঘাতে শিশু খুন!

অনলাইন ডেস্ক: সুনামগঞ্জে চার বছরের শিশু এনামুল হক মুসাকে মাথায় উপর্যুপরি পাথর দিয়ে আঘাত করে হত্যা করেছে আব্দুল হালিম নামে এক ব্যক্তি।

শুক্রবার (১১ ডিসেম্বর) দুপুরে পৌরশহরের গুজাউড়া হাছননগরে এ ঘটনা ঘটে। এ খুনের ৫০ সেকেন্ডের একটি ভিডিও ফেসবুকে ভাইরাল হয়েছে।

এতে দেখা যায়, শিশুটিকে খুন করে খুনি আব্দুল হালিম হাসছেন। এমনকি তাকে বলতে শোনা যায়, ‌‘মনের দুঃখে আমি শিশুটিকে মারছি।’

শুক্রবার রাতে বিন্দু তালুকদার নামে একটি ফেসবুক আইডি থেকে ওই ভিডিওটি প্রথম ভাইরাল হয়।

ঘটনাস্থলের পাশের সিসিটিভি ক্যামেরাতেও ওই ঘটনা ধরা পড়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

নিহত শিশু এনামুল হক মুসা গুজাউড়া গ্রামের নুরুল হকের ছেলে। হামলাকারী আব্দুল হালিমের বাড়ি সদর উপজেলার সুরমা ইউনিয়নের মঈনপুর গ্রামে।

এদিকে পুলিশ ও নিহতের পরিবার সূত্রে জানা যায়, শিশুটি শুক্রবার দুপুরে নিজ বাড়ির সামনে খেলছিল। এ সময় রাস্তা দিয়ে যাওয়ার সময় আব্দুল হালিম প্রথমে তাকে লাথি দিয়ে মাটিতে ফেলে দেয়। এরপর একটি ভারী পাথর দিয়ে তার মাথায় পাঁচ-ছয়বার আঘাত করে। এতে শিশুটির মাথা থেঁতলে যায় এবং প্রচুর রক্তক্ষরণ হয়।

ঘটনাস্থলের পাশ দিয়ে যাওয়ার সময় এক মেটারসাইকেল আরোহীর চিৎকার শুনে বাড়ির লোকজন এসে শিশুটিকে উদ্ধার করে সুনামগঞ্জ সদর হাসপাতালে নিয়ে যায়।

এদিকে অবস্থার অবনিত হলে ওই শিশুকে পরে সিলেটের এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়। কিন্তু বিকেলে চিকিৎসক শিশুটিকে মৃত ঘোষণা করেন।
পরে ঘটনাস্থল থেকে স্থানীয়রা হামলাকারীকে আটক করে। স্থানীয় সুত্রে জানা যায়, খুনি আব্দুল হালিম ওই সময় নেশাগ্রস্ত ছিলেন।

এই প্রসঙ্গে সুনামগঞ্জ সদর মডেল থানার অফিসার্স ইনচার্জ (ওসি) মো. শহীদুর রহমান বলেন, ‘ঘটনাটি খুবই মর্মান্তিক।

blob:https://www.facebook.com/43283419-c625-4d84-943f-ef16fa1134cb

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *